২৯ জুন, ২০১৯

স্টার্ক-বুমরাহদেরও পেছনে ফেলে দুইয়ে সাইফ



সমালোচকের মতে এবারের বিশ্বকাপের সবথেকে দুর্বল বোলিং লাইন আপের মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম। বাংলাদেশের পেসাররা কখনোই ধারাবিহকভাবে ১৪৫ কিলোমিটার গতিতে বল করতে পারেন না। ধরে রাখতে পারেন না সঠিক লাইন এবং লেন্থ। সমালোচকদের অভিযোগের তালিকাটি আরও বড়। তবে এত কিছুর মাঝেও নিজেদের সেরা পারফর্ম করে যাচ্ছে টাইগার পেসাররা।
উইকেট সংগ্রহের দিক দিয়ে সেরা দশে আছে দুই টাইগার পেসার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন এবং মোস্তাফিজুর রহমান। বিশ্বকাপে কেবলমাত্র পেসারদের উইকেট শিকারের তালিকায় মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন আছেন অষ্টম স্থানে এবং তারপরেই আছেন মোস্তাফিজুর রহমান। দুইজনই নিয়েছেন ১০টি করে উইকেট।
- Advertisement -
এ তালিকায় সবার শীর্ষে অবস্থান করছেন অস্ট্রেলিয়ান গতি তারকা মিচেল স্টার্ক, তিনি নিয়েছেন ১৯টি উইকেট। আর দুই টাইগার এই তালিকায় উঠে আসতে পেছনে ফেলেছে জাসপ্রিত বুমরাহ এবং ট্রেন্ট বোল্টের মতো পেসারকেও।
তবে কেবল এই তালিকাতেই বুমরাহ-বোল্টদের পেছনে ফেলেননি সাইফ। এবারের বিশ্বকাপে সব থেকে বেশি ইয়োর্কার বল করার সংখ্যাতেও তাদের থেকে ঢের এগিয়ে সাইফ। এমনকি অস্ট্রেলিয়ান পেসার স্টার্ক যাকে সবাই চেনে ভয়ংকর ইয়োর্কার করা বোলার হিসেবে তাকেও পেছনে ফেলেছে টাইগার এই পেসার।
তালিকায় কেবল লঙ্কান পেসার লাসিথ মালিঙ্গা আছেন সাইফের থেকে ওপরে। মালিঙ্গা করেছেন ৩৫টি ইয়োর্কার আর স্টার্ক-বুমরাহদের পেছেন ফেলা সাইফ করেছেন ২৫টি ইয়োর্কার। এবারের বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত সাইফ খেলেছেন ৫টি ম্যাচ। আর ৫ ইনিংসে ২৮১ রান খরচে নিয়েছেন ১০টি উইকেটও।
তবে এরপরেও সমালোচকদের সমালোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে টাইগার পেসারদের সামর্থ্য নিয়ে। নিজেদের সামর্থ্যের সবটুকু দিয়ে খেলছেন টাইগার পেসাররা। অপরিচিত ইংলিশ কন্ডিশনেও দ্রুত মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা তাদের। পিচ থেকে যতটুকু সম্ভব সুবিধা আদায় করার তাগিদ পেসারদের।
বিশ্বকাপে এখনো সেমিফাইনাল খেলার সম্ভবনা রয়েছে টাইগারদের। আর শেষ দুই ম্যাচে ভারত এবং পাকিস্তানকে হারাতে হলে দলের ব্যাটসম্যান এবং স্পিনারদের সাথে জ্বলে উঠতে হবে পেসারদেরও। ২ জুলাই ভারত এবং ৫ জুলাই পাকিস্তানের মোকাবিলা করবে বাংলাদেশ।



SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: