১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

২০২৭ সালের মধ্যে দেশে ১০ লাখ মোটরসাইকেল উৎপাদন




২০২৭ সালের মধ্যে দেশে ১০ লাখ মোটরসাইকেল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে ‘মোটর সাইকেল শিল্প উন্নয়ন নীতিমালা-২০১৮’ এর খসড়ার অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। একইসঙ্গে এই খাতে ১৫ লাখ কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যমাত্রাও নির্ধারণ করা হয়েছে। সোমবার রাজধানীর তেজগাঁয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভা বৈঠক হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এতে সভাপতিত্ব করেন।বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেন, ‘দেশীয় মোটরসাইকেল শিল্পের প্রসার ঘটাতে এই নীতিমালা করা হয়েছে, যেন মোটরসাইকেল আমদানি করতে না হয়।’
তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে বিদ্যমান মোটরসাইকেল সংযোজন শিল্পের পরিবর্তে বিশ্বমানের মোটরসাইকেল উৎপাদন কারখানা সৃষ্টির জন্য উৎসাহিত করা হবে, উদ্দেশ্য হচ্ছে এই খাতে বিপুল কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা। নীতিমালায় মোটরসাইকেল খাতে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ কর্মসংস্থান পাঁচ লাখ থেকে বাড়িয়ে ২০২৭ সালের মধ্যে তা ১৫ লাখে উন্নীত করার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।’
মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘নীতিমালার উদ্দেশ্য হচ্ছে নতুন করে মোটরসাইকেল তৈরি বা সংযোজন যেটাই করা হোক দেশীয় শিল্প কারখানার মাধ্যমে উৎপাদন করা হবে। দেশীয় প্রযুক্তির মাধ্যমে ২০২১ সালের মধ্যে পাঁচ লাখ এবং ২০২৭ সালের মধ্যে ১০ লাখ মোটরসাইকেল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।’শফিউল আলম বলেন, ‘দেশে মোটরসাইকেল তৈরি করে তা স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারে সরবরাহ করা হবে। মোটরসাইকেল শিল্প থেকে ডিজিপিতে অবদান শূন্য দশমিক ৫ শতাংশ, ২০১৫ সালের মধ্যে তা ২ দশমিক ৫ শতাংশে উন্নীতের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে।’


SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: