১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

ইবির ভর্তি আবেদনের তারিখ পেছালো


ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) সম্মান ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষার আবেদনের তারিখ পিছিয়ে ১৫ সেপ্টেম্বর করা হয়েছে। চলবে আগামী মাসের ১৫ তারিখ পযর্ন্ত। রবিবার (৯ সেপ্টেম্বর)  সকাল সাড়ে ১১টায় কেন্দ্রিয় ভর্তি পরীক্ষা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এস এম আব্দুল লতিফ। আগামী ৪ থেকে ৭ নভেম্বর ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এর আগে ১০ সেপ্টেম্বর থেকে ইবির ভর্তি আবেদন শুরু হওয়ার কথা ছিল। 

রেজিস্ট্রার এস এম আব্দুল লতিফ জানান, ‘অনিবার্য কারণবশত ভর্তি আবেদনের তারিখ পেছানোর সিন্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এছাড়া আল ফিকহ এন্ড লিগ্যাল স্টাডিজ এবং আরবী ভাষা ও সাহিত্য বিভাগকে ‘বি’ ইউনিটেই রাখার সিন্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এক্ষেত্রে আল ফিকহ বিভাগে ভর্তিতে ৫০ শতাংশ মাদ্রাসা (দাখিল অথবা আলিম) ও ৫০ শতাংশ কলেজের শিক্ষার্থী থেকে নেয়া হবে। এছাড়া আরবী ভাষা ও সাহিত্য বিভাগে ভর্তির ক্ষেত্রে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে আরবী অথবা ইসলামিক স্টাডিজ কোর্স থাকতে হবে।’

উল্লেখ্য, এর আগে কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা কমিটি আল ফিকহ ও আরবী বিভাগকে থিওললি এন্ড ইসলামিক স্টাডিজের অনুষদের সাথে ‘এ’ ইউনিটের অধীনে পরীক্ষা গ্রহণের সিন্ধান্ত নেয়। পরে ওই বিভাগের শিক্ষার্থীরা দাবি না মেনে আন্দোলন করলে বিশেষ শর্তে পুনরায় বিভাগ দুটিকে ‘বি’ ইউনিটে অন্তভুক্ত করা হয়।

এদিকে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষেরে ভর্তি পরীক্ষায় ৬০ নম্বরের এমসিকিউ এবং ২০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হবে। এমসিকিউ এবং ২০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষায় পৃথকভাবে পাশ করতে হবে। এক্ষেত্রে এমসিকিউ ও লিখিত উভয় অংশে ৪০ শতাংশ নম্বর পেতে হবে। পৌষ্য ও খেলোয়াড় কোটায় ভর্তির ক্ষেত্রে সর্বনিন্ম ৩৩ শতাংশ নম্বর পেতে হবে। 

জানা যায়, এ বছর ৩৩ টি বিভাগে মোট ২ হাজার ২৭৫টি আসনের বিপরীতে আবেদন করবে ভর্তিচ্ছুকরা। ইউনিট ফি ২০০ টাকাসহ ইউনিটের বিভাগ প্রতি ১০০ টাকা করে ভর্তি নির্ধারণ করা হয়েছে। এই হিসাব অনুযায়ী ‘এ’ ইউনিটে ৫০০ টাকা, ‘বি’ ইউনিটে ১৬০০ টাকা ‘সি’ ইউনিটে ৮০০ এবং ‘ডি’ ইউনিটে ১৪০০ টাকা ভর্তি ফরমের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে।
এছাড়াও ভর্তি আবেদন সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েব সাইট (www.iu.ac.bd) এ পাওয়া যাবে।

প্রশাসন ভবনের সভা কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা কমিটির সভাপতি ও উপাচার্য অধ্যাপক ড. রাশিদ আসকারী, উপ-উপচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা, রেজিস্ট্রার এসএম আব্দুল লতিফ, বিভিন্ন অনুষদীয় ডিন, বিভাগীয় সভাপতি, হল প্রভোস্ট, ছাত্র-উপদেষ্টা, প্রক্টরসহ পরীক্ষা কমিটির সদস্যবৃন্দ।

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: