৭ ডিসেম্বর, ২০১৭

প্রধানমন্ত্রী যশোর আসছেন ৩১ ডিসেম্বর

আগামী ৩১ ডিসেম্বর যশোর আসছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।
ওই দিন বেলা দুইটায় যশোর স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠেয় জনসভায় ভাষণ দেবেন তিনি। এর আগে বিমানবাহিনীর অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর।
বৃহস্পতিবার রাতে এই সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হওয়ার পরপরই তা নিশ্চিত করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার।
প্রধানমন্ত্রীর এই সফরে যশোর পৌরসভাকে সিটি করপোরেশনে উন্নীত করার ঘোষণা দিবেন কী-না তা এখনো নিশ্চিত নয়।
তবে জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে নানা দাবি-দাওয়া তুলে ধরা হবে; যার মধ্যে করপোরেশন ঘোষণার বিষয়টিও থাকতে পারেব।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, আজ রাত আটটার দিকে গণভবনে যশোরের কর্মসূচি চূড়ান্ত হয়। সেখান থেকে বেরুনোর পর যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার জানান, ৩১ ডিসেম্বর বেলা দুইটায় শামসুল হুদা স্টেডিয়ামে জনসভা হবে। সেখানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার সফরসঙ্গী হিসেবে দলের সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ছাড়াও সিনিয়র নেতারা থাকবেন।
এর আগে সকালে প্রধানমন্ত্রী যশোরস্থ মতিউর ঘাঁটিতে বিমানবাহিনীর অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। সেখানে বিমানসেনাদের প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজে প্রধান অতিথি থাকবেন প্রধানমন্ত্রী।
গত জাতীয় নির্বাচনের আগে এক জনসভায় প্রধানমন্ত্রী যশোরবাসীকে আশ্বস্ত করেছিলেন, এ বলে যে-ফের ক্ষমতায় এলে তিনি যশোর পৌরসভাকে সিটি করপোরেশনে উন্নীত করার ব্যবস্থা নেবেন। সে কারণে যশোরবাসী প্রধানমন্ত্রী এখানে এসে কী ঘোষণা দেন, তা দেখার প্রতীক্ষায় রয়েছেন যশোরবাসি।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে শাহীন চাকলাদার বলেন, 'সময় কম ছিল। সে কারণে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বিস্তারিত আলোচনা করার সুযোগ হয়নি। তবে আমরা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে নানা দাবি-দাওয়া তুলে ধরবো। দেখা যাক কী হয়।'
'প্রধানমন্ত্রী যশোর মেডিকেল কলেজ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের হল ছাড়াও বেশ কিছু স্থাপনা উদ্বোধন করবেন,' বলেন, শাহীন চাকলাদার।
এর আগে আগামী ২৭ ডিসেম্বর 'শেখ হাসিনা সফটওয়্যার পার্ক' উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী। শহরের নাজিরশঙ্করপুরে প্রায় আড়াইশ' কোটি টাকা ব্যয়ে পার্কটি স্থাপন করা হয়েছে। ওই দিন বেলা ১১টায় গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী পার্কটি উদ্বোধন করবেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (সচিব) হোসনে আরা বেগম।

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: