১৬ নভেম্বর, ২০১৭

যশোরে গলায় ফাঁঁশ নিয়ে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা

যশোরে গলায় ফাঁঁশ নিয়ে স্কুল ছাত্রী কেয়া খাতুন (১৩) আত্মহত্যা করেছে৷ স্কুল ছাত্রী আত্মহত্যার ঘটনাটি বৃৃহস্পতি বার দুপুরে শহরের ঘোপ জেল রোড এলাকায় ঘটেছে৷ নিহত স্কুল ছাত্রী শহরের ঘোপ জেল রোড এলাকার মৃৃত হারুনের মেয়ে৷ ও এন এম খান প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী৷ নিহত স্কুল ছাত্রী কেয়া খাতুনের বড় ভাই লিটন হাসপাতালে এপ্রতিনিধিকে জানান,বৃৃহস্পতিবার দুপুর তিন টার দিকে ছোট ভাই সিরাজের সাথে গোলোযোগ হয়৷ এই গোলোযোগের কারনে নিজ বাড়ির ঘরের ভিতর আড়ার সাথে উরনা পেচিয়ে গলায় ফাঁঁশ নেয়৷ স্থানিয়রা উদ্ধার করে বৃৃহস্পতিবার বিকাল শোয়া চার টার দিকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে আনে৷ হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক আব্দুর রশীদ মৃৃত ঘোষনা করে বলেন স্কুল ছাত্রীকে হাসপাতালে আনার আগেই মৃৃত্যু হয়েছে৷ কোতয়ালী থানার এস আই মাহাবুব আলম মৃৃত্যুর সত্যতা নিচ্চিত করে বলেন এমৃৃত্যুর ঘটনায় থানায় অপমৃৃত্যু মামলা হয়েছে৷

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: