৭ অক্টোবর, ২০১৭

নোবেল শান্তি পুরস্কার ২০১৭: সম্ভাব্য মনোনীত কারা?



২০১৭ সালে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার বিজয়ীর নাম আগামীকাল শুক্রবার নরওয়ের রাজধানী অসলোতে ঘোষণা করা হবে। দেশটির পার্লামেন্টের নিযুক্ত একটি প্যানেল ৩১৮ জন প্রার্থীর তালিকা থেকে বেছে নেবেন বিজয়ীকে।
গত ৫০ বছর ধরে নোবেল কমিটি বিজয়ী ছাড়াও মনোনীতদের নাম কঠোরভাবে গোপন রেখে থাকে। কিন্তু মনোনয়নকারী নোবেল লরিয়েট, রাজনীতিবিদ, শিক্ষাবিদেরা কখনও কখনও তাদের মনোনীতদের নাম প্রকাশ করে ফেলেন। তবে এ ক্ষেত্রে ভুয়া প্রতিবেদনও অস্বাভাবিক কিছু নয়।
তবে অসলোর নরওয়ে’স পিস রিসার্চ ইনস্টিটিউট প্রতিবছরই একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রকাশ করে থাকে। আবার এও দেখা যায়, জুয়াড়িরাও মুঠোভরে টাকা ধরেন সম্ভাব্য মনোনীতদের ওপর।
এ বছরের জন্য সম্ভাব্য কিছু নামের কথা জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ান। সংবাদমাধ্যমটি বলছে, এবারে এই তালিকায় কম-বেশি এগিয়ে রয়েছেন বেশ কয়েকজন, তাদের মধ্যে রয়েছেন লায়ন্স ক্লাব ইন্টারন্যাশনাল, উইকিলিকস প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ, অভিনেতা লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিও, ব্রিটিশ রাজনীতিবিদ জো কক্স, বুলগেরিয়ান অর্থডক্স চার্চ, মার্কিন গায়ক ডেভিড বোয়ি, রাশিয়ান প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।
এছাড়াও গার্ডিয়ানের ওই প্রতিবেদনে আরও যেসব ব্যক্তি ও সংস্থার নাম এসেছে-

মোহাম্মদ জাভাদ জারিফ ও ফেডেরিকা মোগেরিনি
ইরানের পারমাণবিক চুক্তির জন্য দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভাদ জারিফ এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের বৈদেশিক নীতি বিষয়ক প্রধান ফেডেরিকা মোগেরিনি এবারে নোবেল পুরস্কারের জন্য শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী ভাবা হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্র এবং উত্তর কোরিয়ার মধ্যে উত্তেজনা বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে পারমানবিক অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ এবং বিস্তারে ভূমিকা রাখায় বিচারকেরা এবারে এই দুইজনকে বেছে নিতে পারেন।
সাদা হেলমেট ও তাদের দলনেতা রায়িদ আল সালেহ








কান দুনদার এবং কামহারিয়েত 




স্বেচ্ছানির্বাসনে জার্মানিতে থাকা কান দুনদার ছিলেন তুরস্কের সেক্যুলার দৈনিক কামহারিয়েতের প্রধান সম্পাদক ও কলামিস্ট। মত প্রকাশের স্বাধীনতা সমুন্নত রাখতে গিয়ে সহকর্মীদের সঙ্গে বেশ কয়েকবারই সন্ত্রাসী আক্রমণের শিকার হয়েছেন তিনি। সম্পাদক এবং তার সাবেক পত্রিকাটিকে পুরস্কার দেওয়া হলে, তা হতে পারে দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানের গণমাধ্যমের স্বাধীনতা কেড়ে নেওয়ার বিরুদ্ধে এক প্রতীকী প্রতিবাদ।





SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: