২১ অক্টোবর, ২০১৭

বুকে ব্যথা হয় যেসব কারণে



বুকে ব্যথা হয় যেসব কারণে


বুকের ব্যথা এক ধরনের জটিল সমস্যা। এই ব্যথা হলে মারাত্মক ভয় পায় সবাই। কারণ এই সমস্যা এতো জটিল হয় যে কোন ক্ষেত্রে ব্যক্তিকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে পর্যন্ত যেতে হয়। বিভিন্ন কারণে বুকে ব্যথা হতে পারে। প্রথমে দেখতে হবে বুকে ব্যথা আঘাত জনিত কারণে না আঘাত ছাড়াই হচ্ছে।

ঠাণ্ডা, ফুসফুসের প্রদাহ, ভাইরাল ফিভার, বাতজ্বর, যক্ষ্মা, হৃৎপিণ্ডের জন্মগত সমস্যা, হৃৎপিণ্ডের প্রদাহ, অ্যাজমা, নিউমোনিয়া, সকেমিক হার্ট ডিজিজ, মাংশ পেশী জনিত কারণ, এগুলো আঘাতবিহীন ব্যাথা। যদি আঘাত বিহীন কারণে বুকে ব্যথা হয় তাহলে প্রথমে নিশ্চিত হতে হবে হৃদরোগ জনিত কারণে না অন্য কোন কারণে বুকে ব্যথা হয়েছে। এই কারণ নির্ধারণের জন্য রোগীর কাছ থেকে রোগ সম্পর্কে বিস্তারিত ইতিহাস জানতে হবে এবং এর পর শারীরিক ও ল্যাব পরীক্ষা করে সঠিক রোগ নির্ণয় করলে বেশীর ভাগ বুকের ব্যথা ভালো হওয়া সম্ভব।

প্রথমে বুকের ব্যথা কোন স্থানে- বুকের মাঝ খানে, না বাম বা ডান পার্শ্বে, বুকে ব্যথার প্রকৃতি- চাপ চাপ ব্যথা, মনে হয়  বুকের মাঝ খানে পাথর বসিয়ে রেখেছে এমন, দমবন্ধ হয়ে আসে এমন বা অনুভূতিহীন যেমন হৃদরোগ জনিত কারণ। তীব্র ব্যথা, ছুড়ি দিয়ে আঘাত করলে যেমন মনে হয়, পোড়ানো ব্যথা, শ্বাস নেবার সাথে সাথে তীব্র ব্যথা, ফুসফুস জানিত কারণ যেমন নিউমোনিয়া, পালমোনারী অ্যামবলিজম, হৃদ যন্ত্রের প্রদাহ। হঠাৎ তীব্র পীড়াদায়ক ব্যথা বুকের সামনে থেকে পিছনের দিকে চলে যায় Aortic Desection (ধমনী ছেঁড়া জনিত কারণ) যদি বুকে ব্যথা পরিশ্রম করলে, দুশ্চিন্তা করলে, ঠাণ্ডা আবহাওয়ার সংস্পর্শে আসলে, দুঃস্বপ্ন দেখলে বাড়ে কিন্তু বিশ্রাম নিলে, জিহ্বার নীচে নাইট্রেট জাতীয় ওষুধ দিলে কমে তাহলে হৃদরোগ হয়েছে বলে সন্দেহ করা হয়।

খাবার পর, শোবার সময়, গরম খাবার, মদ পান করলে এবং খালি পেটে যদি ব্যথা বাড়ে, এ্যান্টাসীড জাতীয় ওষুধ খেলে কমে যায়, তাহলে খাদ্যনালী জানিত কারণ, বুকের ব্যথার সাথে শ্বাস কষ্ট হলে হৃদরোগ, পালমোনারী অ্যামবলিজম নিউমোনিয়া নিউমোথোরাক্স হয়েছে বলে সন্দেহ করা হয়।

পরিশ্রম শুরু করার কিছুক্ষণ পর থেকে ব্যথা শুরু হয়, বিশ্রাম নিলেও ব্যথা থাকে, ব্যথা নিরাময় জাতীয় ওষুধ থেকে ব্যথা কমে তাহলে মাংসপেশি জনিত কারণ হয়েছে বলে সন্দেহ করা হয়, বুকে ব্যথা, শ্বাসকষ্ট। হঠাৎ কোন শব্দ হলে বুকের ব্যথা বেড়ে যায় ও বুক ধড়পড় করে, কোন মৃত্যুর সংবাদ শুনলে বুকে ব্যথা শুরু হয়, বিভিন্ন ধরনের দুঃচিন্তা করলে বুকে ব্যথা বেড়ে যায় তাহলে মানসিক কারণে হয়েছে বলে সন্দেহ করা হয়।

জরুরি বিভাগের বুকের ব্যথা জনিত কারণে যেসব রোগী আসে তার শতকর ১০ ভাগের বেশী আসে মানসিক বা দুশ্চিন্তা জনিত কারণে। অনেক সময় পেট ব্যথার সাথে সাথে বুকে ব্যথা থাকতে পারে যেমন পিত্তথলীতে পাথর অথবা Pancreatitis কারণে হয়। যে কারণেই বুকে ব্যথা হোক না কেন রোগীকে অবশ্যই চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হবে এবং কিছু গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা যেমন বুকের সিএক্সআর, ইসিজি জাতীয় পরীক্ষা করে দ্রুত রোগ নির্ণয় করতে হবে এবং সঠিক চিকিৎসা করালে বেশীর ভাগ রোগী ভালো হয়ে যায় এবং অনেক সময় দ্রুত হৃদরোগ নির্ণয় করে সঠিক চিকিৎসা দেয়া সম্ভব।

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: