২ আগস্ট, ২০১৭

মাদক নির্মূলে যশোর এসপির আরো একটি নন্দিত পদক্ষেপ

যশোর পুলিশ সুপার মোঃ আনিসুর রহমান বিপিএম পিপিএম(বার) এবার মাদক শূন্যের কোঠায় আনতে আরো একটি নন্দিত পদক্ষেপ গ্রহণ করে সকল শ্রেণী ও পেশার মানুষের কাছে প্রশংসিত হয়েছেন। ভারতীয় ফেনসিডিলসহ মাদকের ভয়াবহতায় যশোর ছিল একসময় শীর্ষে। মাদকসেবী ও ব্যবসায়ীদের দাপট ছিল অপ্রতিরোধ্য। যশোরে এসপি আনিস যোগদানের পর সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় মাদকের বিরুদ্ধে জেহাদ ঘোষণা করেন।
লাগাতার অভিযানে মাদক স¤্রাটদের আস্তানা গুড়িয়ে সেখানে গাছ রোপন, প্রথমে ১শ’দিনের ক্র্যাশ প্রোগ্রাম পরে বর্ধিত করে আরো ১শ’১দিনের কর্মসূচী অব্যাহত রাখা, আত্মসমর্পণের সুযোগ দেয়া, ছবিসহ পোস্টার ও লিফলেট বিলি করে চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীদের ধরিয়ে দিতে পুরস্কার ঘোষণা, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর উপস্থিতিতে ৯শ’ ৬৫জনের আত্মসমর্পণ, প্রায় ২৬ কোটি টাকার মাদক উদ্ধার, বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার প্রতিনিধি এবং সাংবাদিকদের সমন্বয়ে গোলটেবিল ও স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ে পুলিশ-ছাত্র কাউন্সিল করে সফলতা অর্জনের পর এবার স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসা মাদকসেবী ও ব্যবসায়ীদের পুনর্বাসনে যশোরের ইতিহাসে দৃষ্টান্তস্থাপন করেছেন। এসপি’র উদ্যোগে জেলা পুলিশের ২সহ¯্রাধিক সদস্য একদিনের বেতন দিয়েছেন ১২ লক্ষাধিক টাকা। এসপি আনিসুর রহমান দৈনিক ইনকিলাবকে জানান, যুবসমাজ ধ্বংসকারী মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িতদের ব্যাপারে জিরো টলারেন্স নিয়ে কাজ করছি। যশোরে মাদক শূন্যের কোঠায় না আনা পর্যন্ত আমার সব ধরণের কর্মসূচী অব্যাহত থাকবে।

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: