৬ মে, ২০১৭

রাজদায়িত্ব থেকে অবসরে যাচ্ছেন প্রিন্স ফিলিপ

রাজদায়িত্ব থেকে অবসরে যাচ্ছেন প্রিন্স ফিলিপ


পঁচানব্বই বছর বয়সে রাজ দায়িত্ব থেকে অবসর নেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী ডিউক অফ এডিনবরা প্রিন্স ফিলিপ। ছয় দশক ধরে রানীর পাশে থেকে দায়িত্ব পালনের পর ফিলিপ চলতি বছরের আগস্টে অবসরে যাচ্ছেন।

গ্রিক বংশোদ্ভূত ফিলিপের ক্যারিয়ারের গোড়াপত্তন হয় আরও আগে ১৯৩৯ সালে যুক্তরাজ্যের রয়্যাল নেভিতে। সক্রিয়ভাবে অংশ নেন দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে। এলিজাবেথের সঙ্গে প্রেমের শুরুটা তখনই। যখন ১৮ বছরের তরুণ ফিলিপের প্রেমে পড়েন এলিজাবেথ, তখন তার বয়স মাত্র ১৩। সাত বছর পর, ১৯৪৭ সালে বিয়ে হয় তাদের। এবছর ভালবাসার ৭০তম বার্ষিকী পালন করবেন এই রাজকীয় যুগল।

১৯৫২ সালে বাবা রাজা ষষ্ঠ জর্জ মারা যাওয়ার পর হঠাৎ করেই রানীর আসনে বসতে হয় এলিজাবেথকে। তখন নিজের নৌবাহিনীর উজ্জ্বল ক্যারিয়ার ছেড়ে রানীর কনসর্ট হিসেবে দায়িত্ব নেন ফিলিপ। ৬৫ বছরের বিস্তীর্ণ ক্যারিয়ারে ফিলিপ অসংখ্য গুরুত্বপূর্ণ রাজ দায়িত্ব পালন করেছেন। যুক্ত ছিলেন ৭৮০টি সংগঠনের সাথে। 

স্বামী ফিলিপকে বরাবরই নিজের সবচেয়ে বড় শক্তি হিসেবে অভিহিত করেছেন রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ। ফিলিপের দীর্ঘ কর্মজীবন যেন স্ত্রীর কথার সত্যতাই প্রমাণ করে। ফিলিপের রাজকীয় এ যাত্রার শুরু হয়েছিল ১৯৫২ সালে এলিজাবেথের সিংহাসনে বসার পর।

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: