৩১ মার্চ, ২০১৭

উদ্বোধনের পাঁচ দিন পরেই স্বপ্নের চিত্রা সেতুতে ফাটল



উন্মুক্ত করার পাঁচ দিনের মধ্যেই ফাটল সৃষ্টি হয়েছে নবনির্মিত চিত্রা সেতুতে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই পশ্চিম প্রান্তে সেতুর মূল পাটাতনে ফাটল দেখা দিয়েছে।
গত ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবসে যানচলাচলসহ জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত হয় নড়াইলবাসীর স্বপ্নের চিত্রা সেতু। নির্ধারিত সময়ের প্রায় এক মাস আগে দ্বিতীয় চিত্রা সেতুর নির্মাণ কাজ শেষ হয়।
স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) তত্ত্বাবধানে নড়াইল শহরের সাবেক ফেরিঘাট এলাকায় ২৮ কোটি ২০ লাখ ৮০ হাজার টাকা ব্যয়ে সেতুটি নির্মিত হয়েছে।
আগামী ৩০ এপ্রিল চিত্রা সেতুর নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার কথা থাকলেও ২৬ মার্চ সেতুটি উন্মুক্ত করা হয়। সেতুটি চালুর ফলে নড়াইল শহরের সঙ্গে লোহাগড়া ও কালিয়া উপজেলাবাসী এবং প্রতিবেশী জেলা গোপালগঞ্জ ও যশোরসহ ঢাকার সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ হলেও হঠাৎ করে ফাটল দেখা দেয়ায় নির্মাণ কাজের ক্রটির অভিযোগে জনমনে নানা প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে।
এলজিইডি নড়াইলের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু ছায়েদ জানান, নবনির্মিত চিত্রা সেতুতে ফাটল সৃষ্টি হওয়ার বিষয়টি তার জানা নেই। এ ব্যাপারে খোঁজখবর নেবেন।
ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ৩০ এপ্রিল সেতুটির নির্মাণ কাজ শুরু হয়। নির্ধারিত সময়ের আগে ২৬ মার্চ যানবাহন চলাচলের জন্য সেতুটি উন্মুক্ত হয়েছে। ঢাকার ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স এমবিইএল-ইউডিসি (জেভি) সেতুটি নির্মাণ করেছে।

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: