২৬ মার্চ, ২০১৭

দুই পুলিশসহ নিহত ছয়, আহত ৫০, আইএসের দায় স্বীকার

শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে সিলেট পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (দক্ষিণ) আকতারুজ্জামান বসুনিয়া এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, এর মধ্যে দুজন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর। আরেকজন সাধারণ নাগরিক।

নিহতরা হলেন পুলিশ সদস্য আবু কয়সর, মতিন মিয়া (৩০) ও স্থানীয় লিডিং ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী ছাত্রলীগ নেতা ওয়াহিদুল ইসলাম অপু (২২)। অন্যজনের নাম মাসুক সেও ছাত্রলীগ নেতা বলে জানাগেছে। 

সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে এবং পুলিশ ও সোয়াটের সহায়তায় চলা ‘অপারেশন টোয়াইলাইট’ নিয়ে আজ সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে ব্রিফিং করা হয়। ব্রিফিং শেষ হওয়ার কয়েক মিনিট পর সন্ধ্যা পৌনে সাতটার দিকে ব্রিফিংস্থলের কাছে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় সাংবাদিকসহ ৩৫ জনের বেশি আহত হন। 

এরপর রাত আটটার দিকে আগের ঘটনাস্থলের কাছে পূর্ব পাঠানতলা মসজিদ এলাকায় আরেকটি বোমার বিস্ফোরণ হয়। ওই বিস্ফোরণের ঘটনায় ছয় পুলিশ সদস্য আহত হন।

আহত ৩২ জনকে তাৎক্ষণিকভাবে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আহতদের মধ্যে আছেন দৈনিক মানচিত্র পত্রিকার ফটো সাংবাদিক আজমল। ওসমানী হাসপাতালের চিকিৎসক সুবলজ্যোতি চাকমা জানিয়েছেন, আহত মোট ৩৩ জনকে হাসপাতালে নেয়ার পর একজনকে 'ক্লিনিক্যালি ডেড' ঘোষণা করা হয়। তাঁকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে। 

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: