৩১ মার্চ, ২০১৭

বাবার পর মেয়েও হারলেন সেই সাক্কুর কাছে


আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমাকে হারিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো কুমিল্লার মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন বিএনপির মনোনীত মেয়র প্রার্থী মনিরুল ইসলাম সাক্কু। আগেরবার কুমিল্লার প্রথম সিটি নির্বাচনের সাক্কুর কাছে হারেন সীমার বাবা আওয়ামী লীগ নেতা আফজল খান।
তবে ২০১২ সালের কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি অংশ না নেয়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন সাক্কু্। সেবার তিনি পেয়েছিলেন ৬৫ হাজার ৫৭৭ ভোট। প্রতিদ্বন্দ্বী আফজল খান হারেন ২৯ হাজার ১০৬ ভোটের ব্যবধানে। তিনি পেয়েছিলেন ৩৬ হাজার ৪৭১ ভোট।
তবে এবার বাবার চেয়ে ভোট বেশি পেয়েছেন মেয়ে সীমা। হারের ব্যবধানও কমেছে অনেক। একই বিপক্ষ প্রার্থীর বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সীমা ভোট পেয়েছেন ৫৭ হাজার ৮৬৩টি। বাবার চেয়ে তার ভোট বেড়েছে ২০ হাজার ৫৯২টি। এবার সাক্কু পেয়েছেন ৬৮ হাজার ৯৪৮ ভোট। এবার ভোটের ব্যবধান ১১ হাজার ৮৫টি।
কুমিল্লায় বিভিন্ন নির্বাচনে বরাবরই বিএনপি ভালো ফল করে আসছে। এর পেছনে আওয়ামী লীগের দলীয় অন্তঃকোন্দলকে অনেকটা দায়ী করে থাকে দলটি। কুমিল্লায় আওয়ামী লীগ নেতা বাহাউদ্দিন বাহার ও সীমার বাবা আফজল খানের দ্বন্দ্ব দীর্ঘদিনের। তবে এবার ক্ষমতাসীন দল আশা করেছিল সব দ্বন্দ্ব মিটে যাবে এবং গতবার বাবা আফজল খান হারলেও এবার নারী ভোটারদের আনুকূল্যে নির্বাচনী বৈতরণী উৎরে যাবেন মেয়ে সীমা। প্রথমবারের মতো দলীয় প্রতীকে নির্বাচন বলে দলের সব নেতাকর্মীকে নৌকা মার্কায় ভোট দেবেন বলেও ধারণা করেছিলেন তারা। কিন্তু শেষমেশ সাক্কুর কাছে হার মানতে হলো সীমাকেও।

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: