১৫ ফেব, ২০১৭

২১৬০ কেজি ভারতীয় চা সহ ০১ জন চোরাচালানকারী আসামী গ্রেফতার



ঘটনার বিবরণ ঃ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ইং ১৫/০২/২০১৭ ইং তারিখ ভোর ০৫.০৫ ঘটিকার সময় র‌্যাব-৬, যশোর ক্যাম্পের সিনিয়র এএসপি মোঃ খোদাদাদ হোসেন ও এএসপি গোলাম মোর্শেদ এর নের্তৃত্বে একটি অভিযানিক দল জানতে পারে যে, যশোর জেলার শার্শা থানাধীন সেলকোনা গাতীপাড়া গ্রামস্থ ধৃত আসামী মোঃ বাবুল হোসেন(৩২) এর বসতবাড়ীর উত্তরমুখী মাটির ঘরের পিছনে মেহগনি গাছের বাগানে কতিপয় ব্যক্তি চোরাচালানের মাধ্যমে ভারতীয় চা কেনা-বেচা করিতেছে। বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করে তাহার নির্দেশে সংগীয় ফোর্স নিয়ে উক্ত স্থানে ১৫/০২/২০১৭ইং তারিখ ০৫.৪৫ ঘটিকায় হাজির হই। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে আসামী মোঃ বাবুল হোসেন (৩২), পিং- মৃত আঃ রহমান ঢালী, সাং-সেলকোনা গাতীপাড়া, থানাঃ শার্শা, জেলাঃ যশোর’কে পালানোর চেষ্টাকালে হাতে নাতে উক্ত স্থান হইতে আটক করা হয়। পরবর্তীতে স্থানীয় সাক্ষীদের উপস্থিতিতে ধৃত আসামী মোঃ বাবুল হোসেন(৩২) এর বসতবাড়ীর উত্তরমুখী মাটির ঘরের পিছনে বোঝাইকৃত ০১(এক)টি নসিমনে ২৪(চব্বিশ)টি এবং অপর ০১(এক)টি আলমসাধু (নসিমন) গাড়ীতে ২৪(চব্বিশ)টি মোট ৪৮(আটচল্লিশ)টি খাকি রংয়ের প্লাষ্টিক বস্তায় রক্ষিত ভারতীয় চা, যাহার প্রতিটির গায়ে ইংরেজিতে ঝঐঅখ ইঅএঅঘ ঋঊজঙতঊ ঞঊঅ, ঈঙ.(চ) খঞউ. চঙ ইঙজঐঅচঔঅঘ ঞওঘঝটকওঅ, অঝঝঅগ. (বস্তাগুলো সাদা রংয়ের প্লাষ্টিক দ্বারা মোড়ানো) লেখা আছে। যাহার ওজন গড়ে (৪৮ী৪৫)=২১৬০ কেজি,  যাহার মূল্য অনুমান (২১৬০ী১৫০)=৩,২৪,০০০/- (তিন লক্ষ চব্বিশ হাজার ) টাকা, যাহা আসামীর দেখানো মতে উদ্ধার করা হয়। ধৃত আসামীর বিরুদ্ধে ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫(খ) ধারায় যশোর জেলার শার্শা থানায় একটি মামলা রুজু করা হয়েছে।



হতে ঃ র‌্যাব- ৬, যশোর ক্যাম্প


SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: