২ ডিসেম্বর, ২০১৬

‘পাকিস্তানের কোহলি’ বাবর আজম

ক্রিকেট কাননে পূর্ণবিকশিত এক ফুল বিরাট কোহলি। সুবাস ছড়াচ্ছে বেশ। অন্যদিকে কেবলই কুঁড়ি থেকে ফুটতে শুরু করেছেন বাবর আজম। পাকিস্তানের কোচ মিকি আর্থার তরুণ এই ব্যাটসম্যানের প্রতিভা বোঝাতে তাঁকে তুলনা করেছেন ভারতের টেস্ট অধিনায়ক কোহলির সঙ্গেই।
ক্যারিয়ারের মধ্যগগনে থাকা কোহলি সময়ের অন্যতম সেরা। ৫১ টেস্টে ১৪টি সেঞ্চুরি আর ১৪টি হাফ সেঞ্চুরিতে ৩ হাজার ৯৫৯ রান করেছেন। গড় ৪৮.২৮। ওয়ানডেতে পরিসংখ্যানটা আরও ভালো। ১৭৬ ম্যাচ খেলে ৫২.৯৩ গড়ে করেছেন ৭ হাজার ৫৭০ রান। ২৬টি সেঞ্চুরি নিয়ে ওয়ানডে ইতিহাসে চতুর্থ সর্বোচ্চ সেঞ্চুরিয়ান।
এদিকে কেবলই ক্যারিয়ার শুরু করা বাবর খেলেছেন তিনটি টেস্ট আর ১৮টি ওয়ানডে। দুটি ফিফটিসহ টেস্টে ৪৬.৪০ গড়ে করেছেন আড়াই শর কাছাকাছি রান। ওয়ানডেতে এরই মধ্যে ৩টি সেঞ্চুরি আর ৫টি হাফ সেঞ্চুরি। আর্থার ভালো করেই জানেন, দুজনের তুলনা হয় না। তবে ব্যাটসম্যান বাবরের মধ্যে তিনি তরুণ কোহলির ছায়া যে খুঁজে পান, ​তাতেও সন্দেহ নেই। 
আর্থার বলেছেন, ‘সে তরুণ এক প্রতিভা যে ভবিষ্যতে অসাধারণ এক খেলোয়াড় হবে। এই বয়সে সে কোহলির মতো ভালো বলার মতো ঝুঁকিটা আ
পাকিস্তান তাদের পরের টেস্ট সিরিজটি খেলবে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। ব্রিসবেনে প্রথম টেস্ট শুরু হবে ১৫ ডিসেম্বর। ২৬ থেকে ৩০ ডিসেম্বর দ্বিতীয় টেস্টটি হবে মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে। সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচটি সিডনিতে। 
নিউজিল্যান্ডে প্রতিভা অনুযায়ী নিজেকে সেভাবে মেলে ধরতে না পারলেও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাবর আলো ছড়াবেন বলে আশা আর্থারের। গত সফরে টেস্টে চার ইনিংসে তাঁর রান ছিল: ৭, ২৯ এবং অপরাজিত ৯০ ও ১৬। 
কোহলির সঙ্গে বাবরের আরও একটা মিল খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে। ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে কোহলিও ওয়ানডেতে যতটা দুর্দান্ত ছিলেন, টেস্টে ততটা নয়। কোহলি অবশ্য সেই ধারা থেকে বেরিয়ে আসছেন। বাবরও কোহলিকে অনুসরণ করতে পারেন কি না, সেটাই দেখার। সূত্র: এক্সপ্রেস ট্রিবিউন।

মি নিচ্ছি। আমি জানি, প্রশংসাটা অনেক বড়, কিন্তু এ–ও সত্যি, সে এটার যোগ্য।’

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: