১৩ ডিসেম্বর, ২০১৬

৬০০ পদে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে নিয়োগ, আবেদন প্রক্রিয়া চলছে

স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের নিয়ন্ত্রণাধীন সেবা পরিদপ্তরে ৬০০ জন মিডওয়াইফ নিয়োগ করা হবে। বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশন সচিবালয় এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে নিয়োগের বিষয়টি জানিয়েছে। এই নিয়োগের বিজ্ঞপ্তিটি www.bpsc.gov.bd ওয়েবসাইট থেকে পাওয়া যাবে। এ পদে ইতিমধ্যেই আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে। আবেদন করতে হলে আবেদনকারীকে আগামী ২১ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে আবেদন করতে হবে।
প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, এ পদে আবেদন করতে হলে প্রার্থীকে কোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মিডওয়াইফারি বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রি পাস অথবা কোনো স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান থেকে ডিপ্লোমা ইন মিডওয়াইফারি সার্টিফিকেট এবং বাংলাদেশ নার্সিং কাউন্সিল কর্তৃক নিবন্ধিত হতে হবে। প্রার্থীর বয়স ০১-১১-২০১৬ তারিখে সর্বোচ্চ ৩০ বছরের মধ্যে হতে হবে। প্রার্থীকে অবশ্যই বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে।
এ পদে আবেদনের জন্য প্রার্থীকে টেলিটকের ওয়েবসাইট (http://bpsc.teletalk.com.bd)  অথবা বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশনের ওয়েবসাইট www.bpsc.gov.bd এর মাধ্যমে কমিশন কর্তৃক নির্ধারিত আবেদনপত্র বিপিএসসি ফরম- 5A পূরণ করে অনলাইন রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম এবং ফি জমাদান সম্পন্ন করতে হবে। উল্লিখিত ওয়েবসাইট ওপেন করে নন-ক্যাডার অপশন সিলেক্ট করে ক্লিক করলে মিডওয়াইফ পদের বিজ্ঞপ্তি, Instructions for submitting Application এর রেডিও বাটন দৃশ্যমান হবে। বিপিএসসি ফরম- 5A সফলভাবে পূরণ সম্পন্ন হলে  Application Preview দেখা যাবে। এই  Preview এর স্থানে প্রার্থীকে (দৈর্ঘ্য বাই প্রস্থ) ৩০০ বাই×৩০০ পিক্সেলের কম বা বেশি নয় এবং ফাইল সাইজ ১০০ কেবির বেশি নয়, এরূপ মাপের নিজের সদ্য তোলা রঙিন ছবি স্ক্যান করে জেপিজি ফরম্যাটে আপলোড করতে হবে। অনলাইনে আবেদনপত্র বিপিএসসি ফরম- 5A যথাযথভাবে পূরণপূর্বক নির্দেশমতে ছবি এবং স্বাক্ষর আপলোড করে প্রার্থী কর্তৃক আবেদনপত্র সাবমিশন সম্পন্ন হলে কম্পিউটারে ছবিসহ  Application Preview দেখা যাবে। নির্ভুলভাবে আবেদনপত্র জমা করা হলে প্রার্থী একটি ইউজার আইডিসহ ছবি এবং স্বাক্ষরযুক্ত একটি অ্যাপ্লিকেন্টস কপি পাবেন। এই অ্যাপ্লিকেন্টস কপি প্রার্থীকে প্রিন্ট অথবা ডাউনলোড করে সংরক্ষণ করতে হবে। অ্যাপ্লিকেন্টস কপিতে একটি ইউজার আইডি নম্বর দেওয়া থাকবে। এই ইউজার আইডি নম্বর ব্যবহার করে প্রার্থী বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখিত নিয়মানুযায়ী যেকোনো টেলিটক প্রি-প্রেইড মোবাইল থেকে এসএমএস করে পরীক্ষার ফি বাবদ ৫০০ টাকা জমা দিতে হবে। শুধু ইউজার আইডিপ্রাপ্ত প্রার্থীরা ইউজার আইডি প্রাপ্তির পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে এসএমএসের মাধ্যমে ফি জমা দিতে পারবেন। প্রার্থী তাঁর ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে ছবি ও রেজিস্ট্রেশন নম্বরসংবলিত প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারবেন।
প্রার্থীদের আবেদন করা আবেদনপত্র যাচাই-বাছাইয়ের পর প্রার্থীদের ১০০ নম্বরের এমসিকিউ (লিখিত) পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে। এই পরীক্ষায় মোট ১০০টি প্রশ্ন থাকবে। এক ঘণ্টার এই পরীক্ষায় বাংলা বিষয়ে ১৫, ইংরেজিতে ১৫, সাধারণ জ্ঞান, গণিত ও দৈনন্দিন বিজ্ঞানে ২০ এবং মিডওয়াইফারি (টেকনিক্যাল) বিষয়ে ৫০ নম্বরের প্রশ্ন থাকবে। প্রার্থী প্রতিটি শুদ্ধ উত্তরের জন্য ১ নম্বর পাবেন। এ পরীক্ষায় বাংলা, ইংরেজি ও গণিত বিষয়ে ভালো করতে হলে ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির পাঠ্য বইগুলো পড়লে ভালো করা যাবে। সাধারণ জ্ঞান অংশের জন্য পড়তে হবে প্রতিদিনের পত্রিকা ও সম্প্রতি ঘটে যাওয়া ঘটনাগুলো নিজের আয়ত্তে রাখতে হবে। এ ছাড়া মিডওয়াইফারি (টেকনিক্যাল) বিষয়গুলোর খুঁটিনাটি ভালোভাবে পড়লে এই অংশে ভালো করা যাবে।
এমসিকিউ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের আবার ১০০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে। মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হলে প্রার্থীকে অবশ্যই ৪০ নম্বর পেতে হবে। বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশন সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে, এমসিকিউ ও মৌখিক পরীক্ষার তারিখ পরবর্তী সময়ে কমিশনের ওয়েবসাইট ও বিভিন্ন পত্রিকার মাধ্যমে জানানো হবে।
এমসিকিউ ও মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত হলে একজন মিডওয়াইফ জাতীয় বেতন স্কেল ২০১৫ অনুযায়ী ১৬ হাজার টাকা স্কেলে বেতন ও বিধি অনুযায়ী অন্যান্য ভাতা বা সুবিধা পাবেন।
 যোগাযোগ: এই নিয়োগসংক্রান্ত অতিরিক্ত তথ্য পেতে বিপিএসসির ওয়েবসাইট নিয়মিত ভিজিট করতে হবে। এ ছাড়া কর্মকমিশন সচিবালয়ে
অফিস চলাকালীন ৫৫০০৬৬৫১ টেলিফোন নম্বরে যোগাযোগ করে তথ্য জানা যাবে।

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: