৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

অনুমতি পেলেই মিয়ানমারে সেনা পাঠাতে চায় মালয়েশিয়া

malaysian army tank এর চিত্র ফলাফল



' জাতিসংঘের অনুমতি পেলেই আমরা মিয়ানমারে সেনা পাঠাবো। সেনাবাহিনীকে একটি 'স্ট্যান্ডবাই' ফোর্স প্রস্তুত রাখার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে, যাতে তাদেরকে যেকোনো স্থানে মোতায়েন করা যায়। জাতিসংঘ চাইলেই সেটি সম্ভব হবে।

বৃহস্পতিবার সেনাবাহিনীর পূর্বাঞ্চলীয় কমান্ডের দেয়া এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠান শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

রোহিঙ্গাদের বিষয়ে সেনাপ্রধান বলেন, 'শরণার্থী নিয়ন্ত্রণ করতে সীমান্তে প্রশিক্ষণ তৎপরতা বৃদ্ধি করা যেতে পারে।' যেকোনো হুমকির মুখে সফলতা নিশ্চিত করতে সেনাবাহিনীর সব কর্মকর্তাকে অবশ্যই ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

এদিকে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর শীর্ষ স্থানীয় নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে মালয়েশিয়ার সশস্ত্র বাহিনীর প্রধান (আর্মড ফোর্সেস চিফ) জেনারেল জুলকিফেলি মোহাম্মদ জিনও কড়া বার্তা দিয়েছেন।

তিনি বলেন, মিয়ানমারে রোহিঙ্গা পরিস্থিতি যদি শান্তিপূর্ণ উপায়ে সমাধান করা না যায়, তাহলে তা থেকে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় দায়েশ বা আইএসের বিস্তার হতে পারে।

জেনারেল মোহাম্মদ জিন শিগগিরই সশস্ত্র বাহিনীর পদ থেকে অবসরে যাচ্ছেন। তার আগে তিনি মিয়ানমারের সেনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলাপে মালয়েশিয়া ও এ অঞ্চলের অন্য দেশগুলোতে আইএসের হুমকির বিষয়ে সতর্ক করে দেন।

আসিয়ানভুক্ত দেশগুলো সফর শেষে জেনারেল মোহাম্মদ জিনের পক্ষে এক বিবৃতিতে বলা হয়, আইএসের হুমকি বাস্তব। এ বিষয়ে মালয়েশিয়া কঠোর দৃষ্টিভঙ্গি অনুসরণ করছে।

তাই এ হুমকি মোকাবিলার জন্য আসিয়ানভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে সহযোগিতার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন মোহাম্মদ জিন।


SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: