২৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

টানা ৯২ ম্যাচ খেলার বিরল রেকর্ড মুশফিকের

টানা ৯২ ম্যাচ খেলার বিরল রেকর্ড মুশফিকের


বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অন্যতম ভরসা মুশফিকুর রহিম। উইকেটের পেছনে গ্লাভস হাতে ও উইকেটের সামনে ব্যাট হাতে সমানভাবেই উজ্জ্বল তিনি। গত সোমবার নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে হ্যামস্ট্রিং ইনজুরি পান মুশফিক। সে কারণে কিউইদের বিরুদ্ধে ওয়ানডে সিরিজের বাকি ম্যাচগুলোতে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলতে পারবেন না তিনি। ইনজুরি ছাড়া টানা ৯২ ম্যাচ খেলার রেকর্ড একমাত্র মুশফিকের।

ছয় বছরেরও বেশি সময় পর ইনজুরির কারণে ওয়ানডে ও টি-২০ থেকে ছিটকে পড়লেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অন্যতম ভরসার এই ক্রিকেটার।

১২ জানুয়ারি ওয়েলিংটনে প্রথম টেস্ট খেলতে নামবে বাংলাদেশ। তার আগে মুশফিককে সুস্থ করে তুলতে চাইছে টিম ম্যানেজমেন্ট।

দ্বিতীয় একদিনের ম্যাচ খেলতে নামার আগে বাংলাদেশের কোচ হাথুরুসিংহ জানান, হ্যামস্ট্রিংয়ে চোটের জন্য আগামী দুই সপ্তাহ ওকে দেখা হবে। তার পর সিদ্ধান্ত নেয়া হবে ও কবে মাঠে ফিরতে পারবে।

মুশফিক না থাকা বাংলাদেশের জন্য একটা বড় ধাক্কা উল্লেখ করে কোচ বলেন, ও দারুণ ফর্মে রয়েছে। তিন ফরমেটের ক্রিকেটেই সমানভাবে সফল। আমাদের জন্য বড় ধাক্কা ওর না থাকাটা।

২৯ বছরের মুশফিকুর প্রথম ওয়ান ডেতে দারুণ ফর্মেই ছিলেন। উইকেট কিপিংয়ের সঙ্গে সঙ্গে তার ব্যাট থেকে এসেছিল ৪২ রান। তার পরই চোট পেয়ে বেরিয়ে যান মাঠ থেকে।

২০১০ সালের ১৫ জুলাই থেকে গত ২৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের হয়ে টানা ৯২টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন মুশফিক। এই সময়ের মধ্যে মুশফিকুর রহিমই বিশ্বের একমাত্র ক্রিকেটার যিনি ইনজুরি ছাড়া সব ওয়ানডে ম্যাচে অংশ নিয়েছেন।

এখন পর্যন্ত জাতীয় দলের হয়ে ১৬৫টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন মুশফিকুর রহিম। এতে তিনি ব্যাট হাতে রান করেছেন ৪১১৮। একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে তিনি ২৩টি হাফ সেঞ্চুরি ও চারটি সেঞ্চুরি করেছেন।

তাছাড়া ওয়ানডেতে ১৭১টি ডিসমিসাল করেছেন টিম বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক। তিনি টেস্টে ৯২টি ও টি-টোয়েন্টি ৪৫টি ডিসমিসাল করেছেন।


SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: