২৮ নভেম্বর, ২০১৬

ফরহাদ-মিরাজের ব্যাটে রাজশাহীর সংগ্রহ ১২৮

টস জিতে আগে ব্যাট করা রাজশাহী কিংস নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে তুলেছে ১২৮ রান। দলীয় ৪৩ রানের মাথায় সপ্তম উইকেট হারানো রাজশাহীকে টেনে তোলেন মেহেদি হাসান মিরাজ এবং ফরহাদ রেজা।
বিপিএলের ৩১তম ম্যাচে সন্ধ্যা পৌনে ছয়টায় মুখোমুখি লড়াইয়ে নামে রংপুর রাইডার্স এবং ড্যারেন স্যামির রাজশাহী কিংস। টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন রাজশাহীর দলপতি ড্যারেন স্যামি। রাজশাহীর হয়ে ব্যাটিংয়ের উদ্বোধনে আসেন মুমিনুল হক এবং জুনায়েদ সিদ্দিকী। উইকেটে থিতু হওয়ার আগেই বিদায় নেন জুনায়েদ। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারের চতুর্থ বলে রুবেল হোসেন বিদায় করেন রাজশাহীর এই ওপেনারকে। উইকেটের পেছনে মোহাম্মদ শাহজাদের গ্লাভসবন্দি হওয়ার আগে জুনায়েদ করেন ২ রান।
এরপর বিদায় নেন মুমিনুল হক। জোড়া আঘাত হানেন রংপুরের স্পিনার আরাফাত সানি। ইনিংসের পঞ্চম ওভারে আরাফাত সানি নিজের বলে নিজেই ক্যাচ নিয়ে ফেরান মুমিনুলকে (৯)। একই ওভারের শেষ বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন সামিত প্যাটেল (২)। দলীয় ২৭ রানের মাথায় তৃতীয় উইকেট হারায় রাজশাহী।
ইনিংসের সপ্তম ওভারে আবারো আক্রমণে আসেন সানি। এবার ফেরান আবুল হাসানকে। সানির বল তুলে মারতে গিয়ে নাসির জামসেদের তালুবন্দি হন ২ রান করা আবুল হাসান। দলীয় ৩৩ রানের মাথায় চতুর্থ উইকেট হারায় রাজশাহী।
এরপর বোলিং আক্রমণে এসে উমর আকমলকে বিদায় করেন শহীদ আফ্রিদি। ইনিংসের অষ্টম ওভারে দলীয় ৩৬ রানের মাথায় পাঁচ উইকেট হারায় রাজশাহী। আকমল বোল্ড হওয়ার আগে করেন মাত্র ১ রান। ইনিংসের নবম ওভারে বিদায় নেন রাজশাহীর দলপতি ড্যারেন স্যামি। রংপুরের নতুন অধিনায়ক লিয়াম ডসন বোল্ড করেন ৫ রান করা স্যামিকে। দলীয় ৪১ রানের মাথায় ছয় ব্যাটসম্যান সাজঘরে ফেরেন।
রাজশাহীকে স্বপ্ন দেখানো সাব্বিরের বিদায় হয় ইনিংসের দশম ওভারে। আফ্রিদি বিদায় করেন সাব্বিরকে। নিজের বলে নিজেই ক্যাচ নেন পাকিস্তানি আইকন। বিদায়ের আগে ২০ বলে ১৬ রার করেন সাব্বির। দলীয় ৪৩ রানের মাথায় সপ্তম উইকেট হারায় রাজশাহী।
এরপর জুটি গড়ে রাজশাহীকে লজ্জা থেকে বাঁচান মেহেদি হাসান মিরাজ এবং ফরহাদ রেজা। এই জুটি থেকে আসে অবিচ্ছিন্ন ৮৫ রান। মিরাজ ৩৩ বলে তিনটি চার আর একটি ছক্কায় করেন অপরাজিত ৪১ রান। ফরহাদ রেজা ৩২ বলে দুটি চার আর দুটি ছক্কায় করেন অপরাজিত ৪৪ রান।
রংপুরের হয়ে তিনটি উইকেট তুলে নেন আরাফাত সানি। দুটি উইকেট দখল করেন আফ্রিদি আর একটি করে উইকেট লাভ করেন লিয়াম ডসন এবং রুবেল হোসেন।
চারদিনের মধ্যে দ্বিতীয়বার মুখোমুখি হয় রংপুর রাইডার্স ও রাজশাহী কিংস। চট্টগ্রাম পর্ব শেষে দু’দলের ম্যাচ দিয়েই বিপিএলের ঢাকা দ্বিতীয় পর্বের পর্দা উঠে। গত ২৫ নভেম্বরের ম্যাচটিতে ১২ রানের জয় তুলে নেয় রাজশাহী। ১৬৩ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে পাঁচ উইকেটে ১৫০ এর বেশি করতে পারেনি রংপুর।

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: