১১ অক্টোবর, ২০১৬

পুরো শহরই যেন কবরস্থান!

ইরাকের শিয়া ধর্মাবলম্বী শহর, নাজাফ-এ অবস্থিত কবরখানাটিকেই বিশ্বের বৃহত্তম কবরখানা বলে চিহ্ণিত করা হয়েছে। সাম্প্রতিক পাওয়া খবর অনুসারে, এই গোরস্থান তার আদি আয়তনের প্রায় দ্বিগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এর অন্যতম কারণ হল, ইসলামিক স্টেট-যুদ্ধে যে সংখ্যক শিয়া ধর্মবলম্বী মারা গিয়েছিলেন, তাতে এর আয়তন বৃদ্ধি করা ছাড়া আর কেনও উপায় ছিল না।
এর আগে, ওয়াদি আল-সালাম গোরস্থানটি (যার অর্থ ‘পিস ভ্যালি’) শিয়া মুসলমানদের কাছে বিপুল আবেগের জায়গা ছিল। কারণ, তাঁদের প্রথম ইমাম আলি বিন আবি তালিব-এর সমাধি এইখানেই অবস্থিত। এই কবরখানাতে প্রতিদিন প্রায় ১৫০ থেকে ২০০টি দেহ সমাহিত করা হয়, সংখ্যাটি আগে ছিল ৮০ থেকে ১২০।
জঙ্গি সংগঠন দায়েশের সঙ্গে যুদ্ধে নিরত আধাসামরিকরা আবি তালিব-এর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানাতে আসেন। তাঁদের খায়েশ, এন্তেকালের পরে তাঁদের এখানেই দাফন করা হোক। এটাই হবে তাঁদের শ্রেষ্ঠ ইনাম। ক্রমশ বেড়েছে জমির দাম। দাফনের উপযুক্ত জমি পাওয়া দুষ্কর হয়ে উঠেছে।৪১০০ মার্কিন ডলারে পাওয়া যায় মাত্র ২৫ স্কোয়ার মিটার জমি। তা-ও বিস্তর কাঠখড় পোড়াতে হয় সেজন্য। ক্রমশ ঘিঞ্জি হয়ে ওঠে গোরস্থান। একটা অতিপ্রাকৃত চেহারা নিতে থাকে এই কবরখানা। পর্যটকদের কাছে দ্রষ্টব্য হয়ে ওঠে ‘পিস ভ্যালি’।
বাংলাদেশ সময় : ১৪৪৮ ঘণ্টা, ১১ অক্টোবর ২০১৬

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: