১২ জুলাই, ২০১৬

৫টি অভ্যাস পৌঁছে দেবে স্বপ্নের দোরগোড়ায়

রাতে সুন্দর একটা ঘুম মানেই তরতাজা দিনের শুরু। ঝলমলে দিনে ঝটপট কাজে নেমে পড়া আর সহজে ক্লান্ত না হওয়ার প্রধান চাবিকাঠি রাতের নির্বিঘ্ন ঘুম। কিন্তু প্রায়ই প্রযুক্তির অত্যধিক ব্যবহার, স্ট্রেস, কাজের চাপ আমাদের ৮ ঘন্টার জরুরি ঘুমের রুটিনে ব্যাঘাত ঘটায়। আসুন জেনে নিই কয়েকটি সহজ কৌশল যা আপনার সকালকে উজ্জ্বল করবে, দিনকে করবে কর্মমূখী আর রাতের ঘুমকে করবে শান্তিময়।
ব্যায়াম
অফিস থেকে ফিরে সন্ধ্যায় করুন ব্যায়াম। ব্যায়াম মানেই এই নয় যে শারীরিক কসরত করতে হবে। হাটুন। প্রকৃতিকে অনুভব করুন। অনুভব করুন বাতাসের স্পন্দন, পাখির ঘরে ফেরা। মনকে মুক্ত করুন শান্ত। একই সাথে হাটা অথবা হালকা ব্যায়াম আপনার শরীরের জড়তা কাটিয়ে দেবে।
চিন্তাকে তুলে রাখুন
সারাদিনে আমাদের মস্তিষ্কে জমা হয় নানান রকম চিন্তা, দুশ্চিন্তা, সাফল্যের স্বপ্ন আর না পাওয়ার ভয়। ঘুমোতে যাওয়ার আগে ঝটপট লিখে ফেলুন সেগুলো একটি জার্নালের মত করে। মনোবিজ্ঞানীদের মতে, এটি একজন মানুষের জন্য মানসিক থেরাপীর মত কাজ করে। একই সাথে মস্তিষ্কে জমা হওয়া অপয়োজনীয় জঞ্জাল পরিষ্কার করে এবং পরের দিন আপনার ফ্রেশ মনে সহজেই ভিড় করে নতুন নতুন আইডিয়া।
নিজেই হন নিজের গুরু
সবাই নিজের পার্ফর্মেন্স কোচ হতে পারে না। কিন্তু এই প্রাকটিস আপনার কাজের গতি বাড়িয়ে দিতে পারে বহুগুণে। ঘুমোতে যাওয়ার আগে আপনার ৩ টি প্রধান কাজের তালিকা করুন কাজের গুরুত্ব অনুসারে। আপনি যদি জেনে থাকেন যে, আপনার ১৫টি কাজ রয়েছে টু ডু লিস্টে, তাহলেও সেটিকেও গুরুত্বের অনুসারে সাজান। এই একটি পরদিন আপনাকে সাহায্য করবে দ্রুত কাজ তুলে আনতে।
মনোযোগের অনুশীলন করুন
মনোযোগের অনুশীলন করা প্রয়োজন রোজ। মেডিটেশন করতে পারেন এজন্য। কিভাবে করবেন? আপনার জন্য একটি সহজ পদ্ধতি-
– ধীরে ধীরে কিন্তু গভীর শ্বাস নিন আপনার নাক দিয়ে এবং ছেড়ে দিন মুখ দিয়ে।– মনে অনেক রকম চিন্তা আসবে, সেগুলোকে স্বীকার করুন এবং ধীরে ধীরে চলে যেতে দিন।
– নিজের শরীরের প্রত্যেকটি অঙ্গ সম্পর্কে সচেতন হোন। মাথার তালু থেকে শুরু করে পায়ের আঙ্গুল পর্যন্ত অনুভব করার চেষ্টা করুন, রিল্যাক্স করার চেষ্টা করুন যতক্ষণ না আপনি সহজ বোধ করেন।

একটি চমৎকার বই
আপনি যখন সফলতার কথা ভাবেন তখন কার কথা মনে পড়ে সবার আগে? কে আপনার সেই আদর্শ যাকে আপনি অনুসরণ করেন? বিজ্ঞানী কুদরাত-ই-খুদা? রাজনীতিবিদ শের-এ-বাংলা? নাকি অর্থনীতিবিদ ডা. মোহাম্মাদ ইউনুস? কার মত হতে চান আপনি? এরা সবাই ভিন্ন ভিন্ন ব্যক্তিত্ব। কিন্তু এদের সবার মাঝেই একটি গুণ রয়েছে সব সময়। প্রকৃতপক্ষে, সকল সফল ব্যক্তি মেনে চলেন এটি। ঘুমোতে যাওয়ার আগে তারা পড়েন বই। বই আপনার মনকে করবে ফ্রেশ, চিন্তাকে সরিয়ে নেবে ভিন্ন খাতে, কল্পনাকে নিয়ে যাবে ভিন্ন এক বাস্তবতার জগতে। তাই বই পড়ুন।

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: