২৯ মে, ২০১৫

যশোর শহরে ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের তালিকা তৈরিতে মাঠে সার্ভেয়াররা

যশোর পৌর এলাকায় ঝুঁকিপূর্ণভবনের সঠিক তালিকা তৈরি করতে কাজ করছেন সার্ভেয়াররা। এ কাজ শেষ হলে ভবনের মালিকদের চিঠি দেয়া হবে। সেই সাথে মাইকিং করা হবে। এতে তারা কর্ণপাত না করলে আইনগত ব্যবস্থা নেবে পৌর সভা কর্তৃপক্ষ। যশোর পৌরসভার শহর পরিকল্পনাবিদ সুলতানা সাজিয়া জানান, ঝুঁকিপূর্ণভবনের সঠিক তালিকা নেই। পুরাতন তালিকায় রয়েছে ১৩৪ টি ঝুঁকিপূর্ণ ভবন। তাই নতুন তালিকা তৈরিতে সার্ভেয়াররা মাঠ পর্যায়ে কাজ করছেন। তারা ভবনের ধরণ দেখে ঝুঁকিপূর্ণ তালিকা তৈরি করে পৌরসভায় জমা দেবেন। ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের ধরণ হচ্ছে অনেক পুরাতন অবস্থা, দেয়ালে বড় আকারে ফাটল, ছাদে ফাটল অন্যতম। এ রকম অবস্থা দেখে ভবন ঝুঁকিপূর্ণ কিনা তার তালিকা করবেন সার্ভেয়াররা। বর্তমানে পুরাতন ১৩৪টি ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের তালিকায় রয়েছে পৌর সভায় ৯ ওয়ার্ড। এর মধ্যে ১ নম্বর ওয়ার্ডে ২০টি, ২ নম্বর ওয়ার্ডে ৫৬টি, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে ১০টি, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে ১টি, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে ৪টি, ৬ নম্বর ওয়ার্ডে ২০টি, ৭ নম্বর ওয়ার্ডে ১১টি, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে ৫টি ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডে রয়েছে ৫টি ঝুঁকিপূর্ণ ভবন। এছাড়া আরো ৯টি ঝুঁকিপূর্ণ ভবন ছিলো। পৌরসভা কর্তৃপক্ষ সেগুলো ভেঙে দিয়েছে। বাকি ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের মালিকদের চিঠি দেয়া হয়। পৌরসভার শহর পরিকল্পনাবিদ সুলতানা সাজিয়া আরো জানান, সম্প্রতি ভূমিকম্প হওয়ার পর আরো কঠোর হয়েছে পৌরসভা কর্তৃপক্ষ। তাই পৌর এলাকায় ঝুঁকিপূর্ণভবনের সঠিক তালিকা তৈরির জন্য মাঠ পর্যায়ে সার্ভেয়ারদের কাজে লাগানো হয়েছে। তালিকা তৈরির পর মালিকদের ভবন থেকে সরে যাওয়ার বা সংস্কার করতে চিঠি দেয়া হবে। সেই সাথে করা হবে মাইকিং। এ নির্দেশ তারা না মানলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

1 টি মন্তব্য: