১৭ মে, ২০১৫

খুন খারাবির রাজনীতি আর চলবে না চাঁপাইনবাবগঞ্জে জনসভায় প্রধানমন্ত্রী

রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বিএনপি-জামায়াতকে ধ্বংস-খুন ও সন্ত্রাসের রাজনীতির ধারক-বাহক হিসেবে আখ্যায়িত করে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, যারা দেশের মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করে, দেশের সম্পদ ধ্বংস করে- তাদের সমর্থন দিবেন না। দেশের উন্নয়ন, প্রগতি ও সমৃদ্ধির জন্য আওয়ামী লীগের পতাকাতলে ঐক্যবদ্ধ হোন। বিএনপি-জামায়াতের প্রতি কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশে খুন, নাশকতা ও ধ্বংসের রাজনীতি আর চলবে না। দেশ ধ্বংসের চেষ্টার সঙ্গে জড়িতরাও বিচারের হাত থেকে রেহাই পাবে না, তাদের কোন ক্ষমা নেই।
গতকাল শনিবার বিকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জের নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজ মাঠে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত বিশাল জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। তৃতীয়বারের মতো সরকার গঠনের পর এই প্রথম চাঁপাইনবাবগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে জেলা শহরটিতে সর্বস্তরের মানুষের ঢল নামে। চাঁপাইনবাবগঞ্জসহ পার্শ্ববর্তী জেলাগুলোর হাজার হাজার মানুষ এতে যোগ দেন। দুপুর আড়াইটায় জনসভা শুরুর কথা থাকলেও সকাল থেকেই দূর-দূরান্ত হতে মানুষ জনসভায় আসতে শুরু করেন। জনসভাস্থল ছাপিয়ে আশপাশের কয়েক কিলোমিটার এলাকা জনারণ্যে পরিণত হয়। সংলগ্ন সড়ক ও আশপাশের ভবনের ছাদে বসেও অনেকে মাইকে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য শোনেন ।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপি-জামায়াত মানেই দুর্নীতি, ধ্বংস, সন্ত্রাস, খুন-খারাবি। তারা ক্ষমতায় থাকলেই হত্যা, সন্ত্রাস, দুর্নীতি ও বাংলা ভাইয়ের সৃষ্টি হয়। আর আওয়ামী লীগ মানেই উন্নয়ন, সমৃদ্ধি ও প্রগতি। তাই আগামীতেও ‘নৌকা’ মার্কায় সমর্থন দিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান তিনি। খুনিরা কোন ভোট পেতে পারে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিএনপি-জামায়াত জোটের সময় সারাদেশে বিদ্যুতের জন্য হাহাকার ছিল। আমরা ক্ষমতায় এসে বিদ্যুত্ কেন্দ্র করে দেই। ২০১৩ সালে বিএনপি সেই বিদ্যুত্ কেন্দ্র আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিল। আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে দেশ যখন এগিয়ে যায়, তখন ধ্বংস করার জন্য তারা উঠেপড়ে লাগে। ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করতে সবার সহযোগিতা কামনা করেন প্রধানমন্ত্রী।

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: