৯ এপ্রিল, ২০১৫

কামারুজ্জামানের প্রাণভিক্ষার আবেদন নিয়ে জটিলতা

মানবতাবিরোধী অপরাধে ফাঁসির দণ্ডাদেশপ্রাপ্ত জামায়াত ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ট্রাইব্যুনালের আদেশ কার্যকর করা হয়নি। প্রাণভিক্ষার আবেদন করবেন কি না, এ নিয়ে মুহাম্মদ কামারুজ্জামান ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের ৮ নম্বর সেলে (কনডেম সেল) চিন্তা-ভাবনা করছেন। সর্বশেষ তার প্রাণভিক্ষার আবেদন করা হবে কিনা, এ নিয়ে বিষয়টি ম্যাজিস্ট্রেট পর্যন্ত গড়িয়েছে। একজন ম্যাজিস্ট্রেট আসামি কামারুজ্জামানকে জিজ্ঞাসা করে নিশ্চিত হবেন যে তিনি প্রাণভিক্ষার আবেদন করবেন কি না। বৃহস্পতিবার রাত ৯টা পর্যন্ত ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে এ ব্যাপারে একজন ম্যাজিস্ট্রেট যাননি।স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘কামারুজ্জামান প্রাণভিক্ষার জন্য আবেদন করলে তা রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠানো হবে। অন্যথায় রায় দ্রুত কার্যকর করবে সরকার। তিনি যদি ক্ষমাভিক্ষা না চান, তাহলে যেটা আইন অনুযায়ী করণীয় সেটা করা হবে।’
আইটি লাইভ: গরমে বা শীতে যেকোন সময়ে মশার উপদ্রপ থাকে। মাঝে মধ্যে মশার উপদ্রপ ধৈর্যের সীমা ছাড়িয়ে যায়। স্প্রে বা কয়েল কোন কিছুতেই এ থেকে বাঁচা যায় না। মশা মারার ফাঁদ বা খাঁচা তৈরি করে অনেকটা এদের হাত থেকে বাঁচা সম্ভব। ভাবছেন, কি করে সম্ভব মশাকে খাঁচায় পোরা? বুদ্ধি থাকলে সবই সম্ভব।
এমন একটা খাঁচা বানাব আমরা, যাতে কিনা মশা স্বেচ্ছায় গিয়ে ঢুকবে। অথচ বানাতে নেই মোটেও কোনও ঝামেলা। এই মশার ফাঁদ এক কোনায় রেখে দিলেই আপনার বাসা থাকবে মশা মুক্ত। বিশ্বাস হচ্ছে না? নিজেই চেষ্টা করে দেখুন না!
- See more at: http://www.campuslive24.com/campus.115601.live24/#sthash.1usj6RzJ.dpuf
আইটি লাইভ: গরমে বা শীতে যেকোন সময়ে মশার উপদ্রপ থাকে। মাঝে মধ্যে মশার উপদ্রপ ধৈর্যের সীমা ছাড়িয়ে যায়। স্প্রে বা কয়েল কোন কিছুতেই এ থেকে বাঁচা যায় না। মশা মারার ফাঁদ বা খাঁচা তৈরি করে অনেকটা এদের হাত থেকে বাঁচা সম্ভব। ভাবছেন, কি করে সম্ভব মশাকে খাঁচায় পোরা? বুদ্ধি থাকলে সবই সম্ভব।
এমন একটা খাঁচা বানাব আমরা, যাতে কিনা মশা স্বেচ্ছায় গিয়ে ঢুকবে। অথচ বানাতে নেই মোটেও কোনও ঝামেলা। এই মশার ফাঁদ এক কোনায় রেখে দিলেই আপনার বাসা থাকবে মশা মুক্ত। বিশ্বাস হচ্ছে না? নিজেই চেষ্টা করে দেখুন না!
- See more at: http://www.campuslive24.com/campus.115601.live24/#sthash.1usj6RzJ.dpuf
আইটি লাইভ: গরমে বা শীতে যেকোন সময়ে মশার উপদ্রপ থাকে। মাঝে মধ্যে মশার উপদ্রপ ধৈর্যের সীমা ছাড়িয়ে যায়। স্প্রে বা কয়েল কোন কিছুতেই এ থেকে বাঁচা যায় না। মশা মারার ফাঁদ বা খাঁচা তৈরি করে অনেকটা এদের হাত থেকে বাঁচা সম্ভব। ভাবছেন, কি করে সম্ভব মশাকে খাঁচায় পোরা? বুদ্ধি থাকলে সবই সম্ভব।
এমন একটা খাঁচা বানাব আমরা, যাতে কিনা মশা স্বেচ্ছায় গিয়ে ঢুকবে। অথচ বানাতে নেই মোটেও কোনও ঝামেলা। এই মশার ফাঁদ এক কোনায় রেখে দিলেই আপনার বাসা থাকবে মশা মুক্ত। বিশ্বাস হচ্ছে না? নিজেই চেষ্টা করে দেখুন না!

- See more at: http://www.campuslive24.com/campus.115601.live24/#sthash.1usj6RzJ.dpuf

আইটি লাইভ: গরমে বা শীতে যেকোন সময়ে মশার উপদ্রপ থাকে। মাঝে মধ্যে মশার উপদ্রপ ধৈর্যের সীমা ছাড়িয়ে যায়। স্প্রে বা কয়েল কোন কিছুতেই এ থেকে বাঁচা যায় না। মশা মারার ফাঁদ বা খাঁচা তৈরি করে অনেকটা এদের হাত থেকে বাঁচা সম্ভব। ভাবছেন, কি করে সম্ভব মশাকে খাঁচায় পোরা? বুদ্ধি থাকলে সবই সম্ভব।
এমন একটা খাঁচা বানাব আমরা, যাতে কিনা মশা স্বেচ্ছায় গিয়ে ঢুকবে। অথচ বানাতে নেই মোটেও কোনও ঝামেলা। এই মশার ফাঁদ এক কোনায় রেখে দিলেই আপনার বাসা থাকবে মশা মুক্ত। বিশ্বাস হচ্ছে না? নিজেই চেষ্টা করে দেখুন না!
- See more at: http://www.campuslive24.com/campus.115601.live24/#sthash.1usj6RzJ.dpuf
আইটি লাইভ: গরমে বা শীতে যেকোন সময়ে মশার উপদ্রপ থাকে। মাঝে মধ্যে মশার উপদ্রপ ধৈর্যের সীমা ছাড়িয়ে যায়। স্প্রে বা কয়েল কোন কিছুতেই এ থেকে বাঁচা যায় না। মশা মারার ফাঁদ বা খাঁচা তৈরি করে অনেকটা এদের হাত থেকে বাঁচা সম্ভব। ভাবছেন, কি করে সম্ভব মশাকে খাঁচায় পোরা? বুদ্ধি থাকলে সবই সম্ভব।
এমন একটা খাঁচা বানাব আমরা, যাতে কিনা মশা স্বেচ্ছায় গিয়ে ঢুকবে। অথচ বানাতে নেই মোটেও কোনও ঝামেলা। এই মশার ফাঁদ এক কোনায় রেখে দিলেই আপনার বাসা থাকবে মশা মুক্ত। বিশ্বাস হচ্ছে না? নিজেই চেষ্টা করে দেখুন না!
- See more at: http://www.campuslive24.com/campus.115601.live24/#sthash.1usj6RzJ.dpuf
স্তুত প্রণালী: প্লাস্টিকের বোতলটি ২ ভাগ করে কেটে নিন। পানির সাথে ব্রাউন সুগার মিশিয়ে মিশ্রণটি রেখে দিন একটু। চাইলে হাল্কা কুসুম গরম পানি নিতে পারেন। সেক্ষেত্রে ঠাণ্ডা করুন পুরোপুরি। ঠাণ্ডা হলে বোতলের তলায় ঢেলে দিন। ইস্ট ঢেলে দিন মিশ্রণের মাঝে, নাড়তে হবে না। ইস্ট কার্বন ডাই অক্সাইড তৈরি করবে, যা কিনা মশাদের জন্য খুবই আকর্ষণীয়।
এবার বোতলের মুখ বা ফানেল অংশটি বোতলের ওপরে ছবির মতন উলটো করে বসান। ইচ্ছা হলে মজবুত করার জন্য টেপ দিয়ে আটকেও দিতে পারেন। এবার বোতলের নিচের অংশটি কালো কিছু দিয়ে মুড়িয়ে দিন। কালো টেপ দিয়েও মুড়িয়ে দিতে পারেন। কেননা কালো রঙ মশাদের আকর্ষণ করে।
অন্তত ২৪ ঘণ্টা ইস্টকে ফারমেনট হবার সুযোগ দিন। পানিতে বুদবুদ বা ফেনা উঠলে বুঝবেন যে হয়ে গেছে। এবার এই ফাঁদ রেখে দিন আপনার ঘরের কোথাও, যেখানে জন সমাগম বেশি তার আশে পাশে রাখলেই ভালো।
মশা দেখবেন কেমন আকর্ষিত হয়ে এই ফাঁদে এসে ঢোকে আর মারা যায়। ভালো ফল পাবার জন্য ২ সপ্তাহ পর পর পানি, চিনি, ইস্টের মিশ্রণটি বদলে দিন। মিশ্রণ বদলাবার সময়ে দেখবেন আপনার তৈরি ফাঁদে পা দিয়ে মশাগুলো কেমন ধরা খেয়েছে। ভেবে দেখুন তো, এই মশাগুলো কামড় দিলে কি অবস্থা হতো আপনাদের!
- See more at: http://www.campuslive24.com/campus.115601.live24/#sthash.1usj6RzJ.dpuf
আইটি লাইভ: গরমে বা শীতে যেকোন সময়ে মশার উপদ্রপ থাকে। মাঝে মধ্যে মশার উপদ্রপ ধৈর্যের সীমা ছাড়িয়ে যায়। স্প্রে বা কয়েল কোন কিছুতেই এ থেকে বাঁচা যায় না। মশা মারার ফাঁদ বা খাঁচা তৈরি করে অনেকটা এদের হাত থেকে বাঁচা সম্ভব। ভাবছেন, কি করে সম্ভব মশাকে খাঁচায় পোরা? বুদ্ধি থাকলে সবই সম্ভব।
এমন একটা খাঁচা বানাব আমরা, যাতে কিনা মশা স্বেচ্ছায় গিয়ে ঢুকবে। অথচ বানাতে নেই মোটেও কোনও ঝামেলা। এই মশার ফাঁদ এক কোনায় রেখে দিলেই আপনার বাসা থাকবে মশা মুক্ত। বিশ্বাস হচ্ছে না? নিজেই চেষ্টা করে দেখুন না!
প্রস্তুত প্রণালী: প্লাস্টিকের বোতলটি ২ ভাগ করে কেটে নিন। পানির সাথে ব্রাউন সুগার মিশিয়ে মিশ্রণটি রেখে দিন একটু। চাইলে হাল্কা কুসুম গরম পানি নিতে পারেন। সেক্ষেত্রে ঠাণ্ডা করুন পুরোপুরি। ঠাণ্ডা হলে বোতলের তলায় ঢেলে দিন। ইস্ট ঢেলে দিন মিশ্রণের মাঝে, নাড়তে হবে না। ইস্ট কার্বন ডাই অক্সাইড তৈরি করবে, যা কিনা মশাদের জন্য খুবই আকর্ষণীয়।
এবার বোতলের মুখ বা ফানেল অংশটি বোতলের ওপরে ছবির মতন উলটো করে বসান। ইচ্ছা হলে মজবুত করার জন্য টেপ দিয়ে আটকেও দিতে পারেন। এবার বোতলের নিচের অংশটি কালো কিছু দিয়ে মুড়িয়ে দিন। কালো টেপ দিয়েও মুড়িয়ে দিতে পারেন। কেননা কালো রঙ মশাদের আকর্ষণ করে।
অন্তত ২৪ ঘণ্টা ইস্টকে ফারমেনট হবার সুযোগ দিন। পানিতে বুদবুদ বা ফেনা উঠলে বুঝবেন যে হয়ে গেছে। এবার এই ফাঁদ রেখে দিন আপনার ঘরের কোথাও, যেখানে জন সমাগম বেশি তার আশে পাশে রাখলেই ভালো।
মশা দেখবেন কেমন আকর্ষিত হয়ে এই ফাঁদে এসে ঢোকে আর মারা যায়। ভালো ফল পাবার জন্য ২ সপ্তাহ পর পর পানি, চিনি, ইস্টের মিশ্রণটি বদলে দিন। মিশ্রণ বদলাবার সময়ে দেখবেন আপনার তৈরি ফাঁদে পা দিয়ে মশাগুলো কেমন ধরা খেয়েছে। ভেবে দেখুন তো, এই মশাগুলো কামড় দিলে কি অবস্থা হতো আপনাদের!
- See more at: http://www.campuslive24.com/campus.115601.live24/#sthash.1usj6RzJ.dpuf
আইটি লাইভ: গরমে বা শীতে যেকোন সময়ে মশার উপদ্রপ থাকে। মাঝে মধ্যে মশার উপদ্রপ ধৈর্যের সীমা ছাড়িয়ে যায়। স্প্রে বা কয়েল কোন কিছুতেই এ থেকে বাঁচা যায় না। মশা মারার ফাঁদ বা খাঁচা তৈরি করে অনেকটা এদের হাত থেকে বাঁচা সম্ভব। ভাবছেন, কি করে সম্ভব মশাকে খাঁচায় পোরা? বুদ্ধি থাকলে সবই সম্ভব।
এমন একটা খাঁচা বানাব আমরা, যাতে কিনা মশা স্বেচ্ছায় গিয়ে ঢুকবে। অথচ বানাতে নেই মোটেও কোনও ঝামেলা। এই মশার ফাঁদ এক কোনায় রেখে দিলেই আপনার বাসা থাকবে মশা মুক্ত। বিশ্বাস হচ্ছে না? নিজেই চেষ্টা করে দেখুন না!
প্রস্তুত প্রণালী: প্লাস্টিকের বোতলটি ২ ভাগ করে কেটে নিন। পানির সাথে ব্রাউন সুগার মিশিয়ে মিশ্রণটি রেখে দিন একটু। চাইলে হাল্কা কুসুম গরম পানি নিতে পারেন। সেক্ষেত্রে ঠাণ্ডা করুন পুরোপুরি। ঠাণ্ডা হলে বোতলের তলায় ঢেলে দিন। ইস্ট ঢেলে দিন মিশ্রণের মাঝে, নাড়তে হবে না। ইস্ট কার্বন ডাই অক্সাইড তৈরি করবে, যা কিনা মশাদের জন্য খুবই আকর্ষণীয়।
এবার বোতলের মুখ বা ফানেল অংশটি বোতলের ওপরে ছবির মতন উলটো করে বসান। ইচ্ছা হলে মজবুত করার জন্য টেপ দিয়ে আটকেও দিতে পারেন। এবার বোতলের নিচের অংশটি কালো কিছু দিয়ে মুড়িয়ে দিন। কালো টেপ দিয়েও মুড়িয়ে দিতে পারেন। কেননা কালো রঙ মশাদের আকর্ষণ করে।
অন্তত ২৪ ঘণ্টা ইস্টকে ফারমেনট হবার সুযোগ দিন। পানিতে বুদবুদ বা ফেনা উঠলে বুঝবেন যে হয়ে গেছে। এবার এই ফাঁদ রেখে দিন আপনার ঘরের কোথাও, যেখানে জন সমাগম বেশি তার আশে পাশে রাখলেই ভালো।
মশা দেখবেন কেমন আকর্ষিত হয়ে এই ফাঁদে এসে ঢোকে আর মারা যায়। ভালো ফল পাবার জন্য ২ সপ্তাহ পর পর পানি, চিনি, ইস্টের মিশ্রণটি বদলে দিন। মিশ্রণ বদলাবার সময়ে দেখবেন আপনার তৈরি ফাঁদে পা দিয়ে মশাগুলো কেমন ধরা খেয়েছে। ভেবে দেখুন তো, এই মশাগুলো কামড় দিলে কি অবস্থা হতো আপনাদের!
- See more at: http://www.campuslive24.com/campus.115601.live24/#sthash.1usj6RzJ.dpuf
আইটি লাইভ: গরমে বা শীতে যেকোন সময়ে মশার উপদ্রপ থাকে। মাঝে মধ্যে মশার উপদ্রপ ধৈর্যের সীমা ছাড়িয়ে যায়। স্প্রে বা কয়েল কোন কিছুতেই এ থেকে বাঁচা যায় না। মশা মারার ফাঁদ বা খাঁচা তৈরি করে অনেকটা এদের হাত থেকে বাঁচা সম্ভব। ভাবছেন, কি করে সম্ভব মশাকে খাঁচায় পোরা? বুদ্ধি থাকলে সবই সম্ভব।
এমন একটা খাঁচা বানাব আমরা, যাতে কিনা মশা স্বেচ্ছায় গিয়ে ঢুকবে। অথচ বানাতে নেই মোটেও কোনও ঝামেলা। এই মশার ফাঁদ এক কোনায় রেখে দিলেই আপনার বাসা থাকবে মশা মুক্ত। বিশ্বাস হচ্ছে না? নিজেই চেষ্টা করে দেখুন না!
প্রস্তুত প্রণালী: প্লাস্টিকের বোতলটি ২ ভাগ করে কেটে নিন। পানির সাথে ব্রাউন সুগার মিশিয়ে মিশ্রণটি রেখে দিন একটু। চাইলে হাল্কা কুসুম গরম পানি নিতে পারেন। সেক্ষেত্রে ঠাণ্ডা করুন পুরোপুরি। ঠাণ্ডা হলে বোতলের তলায় ঢেলে দিন। ইস্ট ঢেলে দিন মিশ্রণের মাঝে, নাড়তে হবে না। ইস্ট কার্বন ডাই অক্সাইড তৈরি করবে, যা কিনা মশাদের জন্য খুবই আকর্ষণীয়।
এবার বোতলের মুখ বা ফানেল অংশটি বোতলের ওপরে ছবির মতন উলটো করে বসান। ইচ্ছা হলে মজবুত করার জন্য টেপ দিয়ে আটকেও দিতে পারেন। এবার বোতলের নিচের অংশটি কালো কিছু দিয়ে মুড়িয়ে দিন। কালো টেপ দিয়েও মুড়িয়ে দিতে পারেন। কেননা কালো রঙ মশাদের আকর্ষণ করে।
অন্তত ২৪ ঘণ্টা ইস্টকে ফারমেনট হবার সুযোগ দিন। পানিতে বুদবুদ বা ফেনা উঠলে বুঝবেন যে হয়ে গেছে। এবার এই ফাঁদ রেখে দিন আপনার ঘরের কোথাও, যেখানে জন সমাগম বেশি তার আশে পাশে রাখলেই ভালো।
মশা দেখবেন কেমন আকর্ষিত হয়ে এই ফাঁদে এসে ঢোকে আর মারা যায়। ভালো ফল পাবার জন্য ২ সপ্তাহ পর পর পানি, চিনি, ইস্টের মিশ্রণটি বদলে দিন। মিশ্রণ বদলাবার সময়ে দেখবেন আপনার তৈরি ফাঁদে পা দিয়ে মশাগুলো কেমন ধরা খেয়েছে। ভেবে দেখুন তো, এই মশাগুলো কামড় দিলে কি অবস্থা হতো আপনাদের!
- See more at: http://www.campuslive24.com/campus.115601.live24/#sthash.1usj6RzJ.dpuf

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: