১৬ ফেব, ২০১৫

নিহত শিশুদের স্মরণে স্কুলের সামনে তৈরি স্মৃতি স্তম্ভের উদ্বোধন

যশোরের চৌগাছার ঝাউতলা এলাকায় পিকনিকের বাস খাদে পড়ে বেনাপোল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নয় শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার এক বছর পূর্তিতে তাদের স্মরণে তৈরি স্মৃতিস্তম্ভের উদ্বোধন করা হয়েছে। এ সময় দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।রোববার দুপুর দুইটায় যশোর জেলা প্রশাসক ড. হুমায়ন কবীর নিহত শিশুদের স্মরণে স্কুলের সামনে তৈরি স্মৃতি স্তম্ভের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

২০১৪ সালের ১৫ই  ফেব্রুয়ারি মেহেরপুরের মুজিবনগর থেকে পিকনিক শেষে বেনাপোলে ফেরার পথে যশোরের চৌগাছার ঝাউতলা এলাকায় শতাধিক স্কুল শিক্ষার্থী বহনকারী বাসটি খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যায় সাত শিক্ষার্থী। আহত হয় আরো ৭০ জন। এদের মধ্যে গুরুতর ১৪ জনকে ওই রাতেই যশোর সিএমএইচ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।সেখানে দু’দিন চিকিৎসার পর আশঙ্কাজনক একরামুল ও আরমান নামে দুই ছাত্রকে হেলিকপ্টারে করে ঢাকার সিএমএইচ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে ১৪ দিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে শেষ পর্যন্ত তারাও চলে যায় না ফেরার দেশে।

কেটে গেছে একটি বছর। বর্ষ পঞ্জিকায় স্থান করে নিয়েছে বহুল আলোচিত ও মর্মস্পর্শী এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। তাদের আর্তনাদ কুড়ে কুড়ে খায় সন্তান হারা পরিবারগুলোকে।দুর্ঘটনার তিন দিন পর নিহত নয় শিশু শিক্ষার্থীর বাড়িতে ছুটে আসেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান এমপি ও যশোর শিক্ষক সমিতি।

আলোচনা ও দোয়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বেনাপোল পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটন, যশোর জেলা শিক্ষা অফিসার তাপস অধিকারী, কাস্টমস সহকারী কমিশনার ফয়সাল আহমেদ, শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এটিএম শরীফুল আলম, যশোর পুলিশ সুপার আনিছুর রহমান ও বেনাপোল প্রেসক্লাবের সভাপতি মহসিন মিলন।

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: