১৬ ফেব, ২০১৫

যশোরে গহনার লোভে গৃহবধূ খুন

যশোরে গৃহবধূ ডলি হত্যার মোটিভ উদঘাটন করেছে পুলিশ। এই ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আটক বাপ্পি পুলিশের কাছে হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করেছে

তবে লুণ্ঠিত গহনা যে দুই ব্যবসায়ীর কাছে বিক্রি করেছিল, পুলিশ তাদের মামলার আসামি তো করেইনি; বরং থানা থেকে ছেড়ে দিয়েছে।


শহরের নেতাজী সুভাষ চন্দ্র সড়কের ওয়ালটন শো রুমের সাথেকে রোববার রাতে কোতয়ালী থানা পুলিশ ইউসুফ আল জামিউজ্জামান বাপ্পিকে আটক করে। সে শহরতলীর বিরামপুর এলাকার আক্তারুজ্জামানের ছেলে।

আটক বাপ্পি গৃহবধূ ডলিকে শ্বাসরোধে হত্যার কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে। গত ১২ জানুয়ারি শহরতলির বিরামপুরে নিজ বাড়িতে গৃহবধূ আঞ্জুমান আক্তার ডলি খুন হন।

বাপ্পির স্বীকারোক্তি উদ্ধৃত করে কোতয়ালী থানার এসআই হিমায়েত হোসেন জানান, বাপ্পি ওই এলাকার একটি ওষুধের দোকানের মালিক। সেই সূত্রে গৃহবধূ আঞ্জুমান আক্তার ডলির সঙ্গে তার সু-সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ডলির স্বামী আবদুর রশিদ ফেনীতে সরকারি চাকরি করেন। তার দুই ছেলেই প্রবাসী। ফলে একা বাড়িতে থাকতেন ডলি।

গত ১২ জানুয়ারি সন্ধ্যার দিকে বাপ্পি তার বাড়িতে যায়। সে সময় ডলি টেলিভিশন দেখছিলেন। বাপ্পি ঘরে ঢুকেই ডলিকে তারই গায়ের চাদর দিয়ে পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে। মরদেহ খাটের ওপর রেখে তার শরীর থেকে এক জোড়া কানের দুল এবং গলার চেইন খুলে নিয়ে যায়। পরদিন ঘরের তালা ভেঙে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহতের স্বামী আবদুর রশিদ এই ঘটনায় কাউকে অভিযুক্ত না করে কোতয়ালী থানায় একটি মামলা করেন।

এসআই হিমায়েত হোসেন আরও জানান, রোববার রাতে বাপ্পিকে আটক করার পর সে পুলিশের কাছে হত্যার কথা স্বীকার করেছে। সে লুণ্ঠিত এক জোড়া কানের দুল শহরের চুড়িপট্টি এলাকার শ্যামলকুমারের ‘উৎসব সিলভার হাউজে’ এবং গলার চেইন একই এলাকার অতুলকুমারের ‘রতন জুয়েলার্সে’ বিক্রি করে। যে দোকানে সোনার গহনা বিক্রি করেছিল সেখানে অভিযান চালিয়ে দুই সোনা ব্যবসায়ীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনে পুলিশ।

আটক সোনা ব্যবসায়ী শ্যামলকুমার এবং অতুলকুমার তাদের কাছে গহনা বিক্রির কথা স্বীকার করে।

এদিকে চোরাই গহনা কেনার কথা স্বীকার করলেও পুলিশ দুই সোনা ব্যবসায়ীকে ছেড়ে দিয়েছে। দুপুরে তাদের ছাড়িয়ে নেয়ার জন্য ওই এলাকার জুয়েলারি ব্যবসায়ীরা তদবির করছিলেন। মোটা টাকার বিনিময়ে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে এসআই হিমায়েত হোসেন বলেন, “ওই দুই ব্যবসায়ী মামলার সাক্ষী হবেন। এই কারণে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে। টাকা নেয়ার অভিযোগ ঠিক না।”

বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের হরতাল-অবরোধ চলাকালে রাজধানীর বাড্ডার লিংক রোডে একটি যাত্রীবাহী বাসে আগুন দিয়েছে অজ্ঞাতরা।
সোমবার বিকাল ৪টার দিকে ওই বাসে আগুন দেয়া হয়। তবে এতে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।
ফায়ার সার্ভিসের ডিউটি অফিসার আতাউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আগুনে বাসটির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। তবে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। - See more at: http://www.kalerkantho.com/online/national/2015/02/16/188609#sthash.K9K4RNKU.dpuf
বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের হরতাল-অবরোধ চলাকালে রাজধানীর বাড্ডার লিংক রোডে একটি যাত্রীবাহী বাসে আগুন দিয়েছে অজ্ঞাতরা।
সোমবার বিকাল ৪টার দিকে ওই বাসে আগুন দেয়া হয়। তবে এতে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।
ফায়ার সার্ভিসের ডিউটি অফিসার আতাউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আগুনে বাসটির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। তবে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। - See more at: http://www.kalerkantho.com/online/national/2015/02/16/188609#sthash.K9K4RNKU.dpuf
বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের হরতাল-অবরোধ চলাকালে রাজধানীর বাড্ডার লিংক রোডে একটি যাত্রীবাহী বাসে আগুন দিয়েছে অজ্ঞাতরা।
সোমবার বিকাল ৪টার দিকে ওই বাসে আগুন দেয়া হয়। তবে এতে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।
ফায়ার সার্ভিসের ডিউটি অফিসার আতাউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আগুনে বাসটির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। তবে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। - See more at: http://www.kalerkantho.com/online/national/2015/02/16/188609#sthash.K9K4RNKU.dpuf
বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের হরতাল-অবরোধ চলাকালে রাজধানীর বাড্ডার লিংক রোডে একটি যাত্রীবাহী বাসে আগুন দিয়েছে অজ্ঞাতরা।
সোমবার বিকাল ৪টার দিকে ওই বাসে আগুন দেয়া হয়। তবে এতে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।
ফায়ার সার্ভিসের ডিউটি অফিসার আতাউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আগুনে বাসটির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। তবে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। - See more at: http://www.kalerkantho.com/online/national/2015/02/16/188609#sthash.K9K4RNKU.dpuf
বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের হরতাল-অবরোধ চলাকালে রাজধানীর বাড্ডার লিংক রোডে একটি যাত্রীবাহী বাসে আগুন দিয়েছে অজ্ঞাতরা।
সোমবার বিকাল ৪টার দিকে ওই বাসে আগুন দেয়া হয়। তবে এতে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।
ফায়ার সার্ভিসের ডিউটি অফিসার আতাউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আগুনে বাসটির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। তবে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। - See more at: http://www.kalerkantho.com/online/national/2015/02/16/188609#sthash.K9K4RNKU.dpuf
বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের হরতাল-অবরোধ চলাকালে রাজধানীর বাড্ডার লিংক রোডে একটি যাত্রীবাহী বাসে আগুন দিয়েছে অজ্ঞাতরা।
সোমবার বিকাল ৪টার দিকে ওই বাসে আগুন দেয়া হয়। তবে এতে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।
ফায়ার সার্ভিসের ডিউটি অফিসার আতাউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আগুনে বাসটির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। তবে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। - See more at: http://www.kalerkantho.com/online/national/2015/02/16/188609#sthash.K9K4RNKU.dpuf
বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের হরতাল-অবরোধ চলাকালে রাজধানীর বাড্ডার লিংক রোডে একটি যাত্রীবাহী বাসে আগুন দিয়েছে অজ্ঞাতরা।
সোমবার বিকাল ৪টার দিকে ওই বাসে আগুন দেয়া হয়। তবে এতে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।
ফায়ার সার্ভিসের ডিউটি অফিসার আতাউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আগুনে বাসটির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। তবে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। - See more at: http://www.kalerkantho.com/online/national/2015/02/16/188609#sthash.K9K4RNKU.dpuf
বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের হরতাল-অবরোধ চলাকালে রাজধানীর বাড্ডার লিংক রোডে একটি যাত্রীবাহী বাসে আগুন দিয়েছে অজ্ঞাতরা।
সোমবার বিকাল ৪টার দিকে ওই বাসে আগুন দেয়া হয়। তবে এতে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।
ফায়ার সার্ভিসের ডিউটি অফিসার আতাউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আগুনে বাসটির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। তবে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। - See more at: http://www.kalerkantho.com/online/national/2015/02/16/188609#sthash.K9K4RNKU.dpuf
বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের হরতাল-অবরোধ চলাকালে রাজধানীর বাড্ডার লিংক রোডে একটি যাত্রীবাহী বাসে আগুন দিয়েছে অজ্ঞাতরা।
সোমবার বিকাল ৪টার দিকে ওই বাসে আগুন দেয়া হয়। তবে এতে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।
ফায়ার সার্ভিসের ডিউটি অফিসার আতাউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আগুনে বাসটির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। তবে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। - See more at: http://www.kalerkantho.com/online/national/2015/02/16/188609#sthash.K9K4RNKU.dpuf

SHARE THIS

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: